মঙ্গলবার, অক্টোবর ২৩

আব্বা বাসায়, খুব গোলাগুলি হচ্ছে, বাঁচব কি না জানি না !

 

বিশেষ প্রতিনিধি, সিএন নিউজ২৪.কমঃ-

রাজধানীর পশ্চিম নাখালপাড়ার ‘জঙ্গি আস্তানা’ সন্দেহে ঘিরে রাখা রাড়ি ‘রুবি ভিলায়’ গতকাল বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ২টা থেকে অভিযান শুরু করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। ভবনটির মালিক সাব্বির হোসেন বিমানবাহিনীর সাবেক কর্মকর্তা বলে এলাকাবাসী জানিয়েছেন।

ভবনটির পাঁচতলার একটি কক্ষেই ‘জঙ্গি আস্তানা’ বলে জানিয়েছে র‍্যাব। ওই ভবনে মেস করেও শিক্ষার্থী ও অন্যরা থাকেন। ষষ্ঠতলার এ রকম একটি কক্ষে থাকেন গাজীপুরের পারভেজ নামের এক যুবক। তিনি অভিযান শুরুর পর পরই তার বাবা কামরান হোসেনকে ফোন করে পরিস্থিতি জানান।

কামরান ছেলের ফোন পেয়েই ঢাকায় ছুটে এসেছেন। কিন্তু ছেলের সঙ্গে কোনো যোগাযোগ করতে পারছেন না। ছেলের ফোনও বন্ধ পাচ্ছেন সকাল থেকে। ‘রুবি ভিলা’য় প্রবেশের চেষ্টা করেও তিনি ব্যর্থ হন। ফলে ওই বাড়ির আশপাশেই ছেলের সন্ধানে ঘুরছেন কামরান।

বেলা ১১টার দিকে ‘রুবি ভিলা’র পাশের একটি গলিতে কামরানের সঙ্গে কথা হলে তিনি বলেন, ‘রাত আনুমানিক ৩টার দিকে ছেলে ফোন দিছে। দিয়ে বলে, আব্বা, বাসায় খুব গোলাগুলি হচ্ছে। কী হচ্ছে বুঝতে পারছি না। বাসা র‍্যাব আর পুলিশ ঘিরে রেখেছে। বাসায় খুব গোলাগুলি হচ্ছে। আব্বা, বাঁচব কি না জানি না, আপনি তাড়াতাড়ি চলে আসেন। এর পরই আমি বাড়ি থেকে রওনা দিছি’।

তিনি আরো বলেন, এখানে আসার পর ছেলের মোবাইল বন্ধ পাচ্ছি। তার সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারছি না।

পশ্চিম নাখালপাড়ার যে ছয়তলা বাড়িটি ঘিরে এ অভিযান চলছে, সেটি প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে খুব বেশি দূরে নয়। বাড়িটির পাঁচতলায় একটি মেস করে জঙ্গিরা অবস্থান করছিল বলে র‍্যাব প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে।

সেখানে তাঁরা উঠেছিল এক সপ্তাহ আগে। তবে তাঁরা ভুয়া আইডি ব্যবহার করেছিল বলে সন্দেহ করছে র‍্যাব।

সিএন নিউজ২৪.কম এ কুমিল্লা নাঙ্গলকোট সহ সারা বিশ্বের সংবাদ পেতে হলে এই লেখার উপরে ক্লিক করে আমাদের ফেসবুক ফ্যান পেইজে লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন। সংবাদটি সম্পর্কে মন্তব্য করতে হলে এই পেইজের নীচে মন্তব্য করার জন্য ঘর পাবেন।

Comments

comments

Powered by Facebook Comments

One Comment

  • আল_মামুন

    (((জঈি দমন))

    )((সাড়াশি অভিযান))

    জঈি যত যেথায় আছেগর্তে চিপায় চাপায়,ভালোই আছে ভালোই ছিলো,ওপরঅলার কৃপায়।
    আসকারাতে দিন দিনই যেবাড়ছিল বাড় ওদের,কর্তারা তাই পণ করেছেএবার প্রতিরোধ।
    আজ সাঁড়াশি দিয়েই হবেকাজটা টেনে তোলার,জঈি নাঠোর, সাতখীরা, বা রাঈুনিয়া ভোলা_
    পড়বে ধরা বাঁচবে না কেউএই অভিযান কঠোর,কেউ যদি দেয় ঢিলএ কাজে চাকরি হবে নট’ ওর,পড়লো ধরা হাজার খানেক দেখছি প্রথম দিনেই,সন্রাসী. চোর. মাদক_বণিক বলুন দেখি কি নেই।
    বলতে এটা নেই প্রয়োজোন বিরাট জ্ঞানী হবার,এই তালিকায়া উপস্হিতি জঈি ছাড়া সবার।?

    মোঃআল_মামুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *