মঙ্গলবার, জুলাই ১৭

ইবিতে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ আহত ৩

সিএন নিউজ ইবি প্রতিনিধি, এম.এইচ. কবিরঃ-
ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে, অাহত হয়েছেে ৩ জন।
শনিবার, ৩ মার্চ বিকাল ৫ টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসিসিতে সভাপতি এর অনুসারী অাল অামিন মিলন ও সাধারণ সম্পাদকের অনুসারী রিমন,রোজওয়ান, এনামুল, মামুনের সাথে কথা কাটাকাটি হয়,  এক পর্যায়ের  মিলনকে চড় থাপ্পর দিতে থাকে। পরে সে দৌড়ে হলে চলে অাসে,হলেও ২য় দফায় মারামারি হয়।গুরুতর অাহত অাল অামিনকে বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিকেলে ভর্তি করানো হয়েছে।
আল আমিন মিলন নামের ওই ছাত্রলীগ কর্মী বিশ্ববিদ্যালয়ের বায়োটেকনোলজি অ্যান্ড জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষার্থী।
ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জুয়েল রানা হালিমের অনুসারী রিমন মারামারির ছবি তোলার সময় সাংবাদিকের কাছ থেকে মোবাইল কেড়ে নেয় বলে জানা গেছে।
পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. মাহবুবর রহমানসহ প্রক্টরিয়াল বডি ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনেন।
এ বিষয়ে গুরুতর অাহত সভাপতি গ্রুপের কর্মী অাল অামিন বলেন,  অামি নিজেও জানি না অামাকে কি কারনে মারপিট করা হলো,  তারা অামাকে ডেকেছে, অামি তাদেরকে সালাম দিয়ে  যথাযথ সম্মান দেখিয়েছি,  তারপরও অামাকে বিনা কারণে পেটানো হয়েছে,  অামি বিশ্ববিদ্যালয়ের  প্রশাসনের কাছে এর বিচার দাবি করছি।
এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি শাহিনুর রহমান শাহিন বলেন, ‘আমার কর্মীদের অযথা, বিনাকারণে মারপিট করা হয়েছে। আমরা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে জানিয়েছি। তারা এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত না নিলে আমরা  দলীয় সিদ্ধান্ত নিবো।
এ বিষয়ে সাধারণ সম্পাদক জুয়েল রানা হালিম বলেন,অামাদের  নিজেদের মধ্যে ভুল বুঝাবুঝির ফলে এমটি হয়েছে।পরে  আমি অামার কর্মীদের নিয়ন্ত্রণ করেছি।
এ বিষয়ে প্রক্টর অধ্যাপক ড. মাহবুর রহমান বলেন, ‘নিজেদের মধ্যে ভুল বুঝাবুঝির কারনে এ ঘটনার সূত্রপাত হয়েছে। বিষয়টি শোনামাত্রই আমি ঘটনাস্থলে গিয়েছি এবং  সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের সাথে  বসে বিষয়টি সমাধান  করার চেষ্টা করছি।

Comments

comments

Powered by Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *