সোমবার, অক্টোবর ১৫

ইবিতে ৩ দিনব্যাপী বৈশাখী ও বিজ্ঞান মেলা

 


এম এইচ কবীর, ইবি।
ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) পহেলা বৈশাখ ১৪২৫ উপলক্ষে তিনদিনব্যাপী বৈশাখী ও বিজ্ঞান মেলার আয়োজন করা হয়েছে।

এ বছর ব্যাপক আয়োজনের মধ্যদিয়ে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে পহেলা বৈশাখ ১৪২৫ কে বরণ করা হবে। এ উপলক্ষ্যে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে ৩ দিনব্যাপী বিভিন্ন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে । আয়োজনের মধ্যে রয়েছে মঙ্গলবার শোভাযাত্রা, ৩ দিনব্যাপী বৈশাখী ও বিজ্ঞান মেলা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান এবং গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী লাঠি খেলা।

বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে বৈশাখী ও বিজ্ঞান মেলা সফল ও সার্থক করার লক্ষ্যে এক সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
রবিবার (৮ এপ্রিল) সকালে ভাইস চ্যান্সেলরের সভাকক্ষে উপাচার্য প্রফেসর ড. মোঃ হারুন-উর-রশিদ আসকারীর সভাপতিত্বে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় সভাপতির বক্তৃতায় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ হারুন-উর-রশিদ আসকারী বলেন, পহেলা বৈশাখের অনুষ্ঠান একটি সার্বজনীন উৎসব যেখানে সকল ধর্ম ও বর্ণের মানুষ এক ও অভিন্ন ভাবে এই উৎসবে অংশগ্রহণ করেন। এটি বাঙালী জাতির মহোৎসব।
তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার এ উৎসবকে বিশেষ গুরুত্ব দিয়েছেন এ কারণেই বৈশাখী উৎসব ভাতা চালু করা হয়েছে। তিনি ৩দিনব্যাপী এ উৎসব সফল ও সার্থক করতে দলমত নির্বিশেষে সকলের সাহায্য সহযোগিতা কামনা করেন।

মতবিনিময় সভায় প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর ও জাতীয় দিবসসমূহ উদ্যাপন স্ট্যান্ডিং কমিটির আহবায়ক প্রফেসর ড. মোঃ শাহিনুর রহমান বলেন, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০০৯ সাল হতে ব্যাপক পরিসরে বৈশাখী উৎসব পালন করা হচ্ছে। আশারাখি এবছরের আয়োজন অতীতের সকল আয়োজনকে ছাড়িয়ে যাবে। তিনি বলেন, এবছর পহেলা বৈশাখের উৎসবের সাথে বিজ্ঞান মেলা যুক্ত হয়েছে। আশারাখি শিক্ষার্থীরা এ আয়োজনের মধ্যদিয়ে তাদের উদ্ভাবনী শক্তি প্রকাশের সুযোগ পাবে।

সমন্বয় সভায় অংশগ্রহণ করেন বিভিন্ন অনুষদীয় ডিন, হল প্রভোস্ট, বিভাগীয় সভাপতি, অফিস প্রধান এবং পহেলা বৈশাখ উদযাপন উপলক্ষ্যে গঠিত বিভিন্ন উপ-কমিটির আহবায়ক ও সদস্য- সচিববৃন্দ।

Comments

comments

Powered by Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *