বৃহস্পতিবার, জুন ২১

এশার পর মক্কা থেকে মিনায় যাবেন মুসুল্লিরা

সৌদি আরব প্রতিনিধিঃ-

আজ মঙ্গলবার থেকে শুরু হচ্ছে পবিত্র হজ পালনের আনুষ্ঠানিকতা। এরইমধ্যে সৌদি আরবে সমবেত হয়েছেন বিভিন্ন দেশের প্রায় ২০ লাখ ধর্মপ্রাণ মানুষ। আজ রাতে এশার নামাজ আদায়ের পর মক্কা থেকে মিনায় যাত্রা করবেন মুসুল্লিরা।
আল্লাহ পাকের মেহমানদের নির্দিষ্ট সময়ে মিনায় পৌঁছাতে পরিবহনসহ সবধরনের সেবা নিশ্চিত করেছে হজ কর্তৃপক্ষ।

কাতারে অবরোধ আর ইয়েমেন যুদ্ধের মতো সংকটের মধ্যেই পবিত্র হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরু করছে সৌদি আরব। এরইমধ্যে আল্লাহর মেহমান হয়ে দেশটিতে জমায়েত হয়েছেন বিশ্বের নানা প্রান্ত থেকে আসা অন্তত ২০ লাখ ধর্মপ্রাণ মানুষ।
মদিনা থেকে পবিত্র মক্কা নগরীতে ফেরা হজযাত্রীরা মঙ্গলবার রাতেই এশার নামাজ আদায়ের পর পায়ে হেঁটে, বাসে চেপে বা মনোরেলে রওনা হবেন ৫ মাইল দূরের তাবুর শহর মিনায়।
বুধবার জোহরের ওয়াক্তের মধ্যেই মিনায় পৌঁছাবেন সব মুসুল্লি। আল্লাহর নৈকট্য লাভের আশায় ইবাদত-বন্দেগি, জিকির আর পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়ে বৃহস্পতিবার ভোরে আরাফাত ময়দানে রওনা হবেন তারা।
সেখানে হজের খুতবা, মোনাজাত আর জোহরের নামাজ আদায়ের মধ্য দিয়ে পালিত হবে পবিত্র হজ।

হজের জন্য প্রস্তুত ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা। তেমনি প্রস্তুত সৌদির হজ কর্তৃপক্ষ। প্রস্তুত আরাফা, মিনা এবং মুজদালিফা। হাজিদের নিরাপত্তায় প্রস্তুত ৫১ হাজারের বেশি নিরাপত্তাকর্মী।
এবারের হজে যোগ দিয়েছেন, সৌদির আঞ্চলিক প্রতিদ্বন্দ্বী ইরানের নাগরিকেরা। গেছেন কাতার থেকেও। ২০১৫ সালে মিনা ট্র্যাজেডিতে নিহত ২ হাজার ৩০০ হাজির মধ্যে ইরানেরই ছিলেন প্রায় ৪০০ জন। নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন তুলে গেলো বছর হজ করতে যাননি ইরানিরা।
এদিকে অবরোধ আরোপ করলেও ব্যাপক সমালোচনার মুখে শেষ মুহূর্তে কাতারিদের হজের অনুমতি দেয় সৌদি সরকার। হজ আন্তর্জাতিকীকরণের প্রশ্ন তোলে কাতার-ইরান। এসব বিতর্ক পাশ কাটিয়ে কড়া নিরাপত্তায় পবিত্র হজ পালিত হচ্ছে সৌদি আরবে।

Comments

comments

Powered by Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *