রবিবার, সেপ্টেম্বর ২৩

পদত্যাগ, নাকি বহিষ্কার! “দাদাভাই” ও প্রবাসী কল্যাণ ইউনিটের কি আসল রহস্য?

এমডি শাহিন মজুমদারঃ
নাঙ্গলকোট প্রবাসী কল্যাণ ইউনিটের সাবেক সহ-সভাপতি সুইজারল্যান্ড প্রবাসী হাসানুজ্জামান (দাদা ভাই) নিজ দায়িত্ব হতে পদত্যাগ করেছেন নাকি উক্ত সংগঠন হতে বহিষ্কৃত হয়েছেন তা নিয়ে চলছে ব্যাপক গুঞ্জন!

হাসানুজ্জামান দাদাভাই তার ফেসবুক ষ্ট্যাটাসে লিখেছেন গরীব-অসহায়, হতদরিদ্রদের যেখানে স্বেচ্ছায় নিঃস্বার্থভাবে দান করা হবে, সেখানে স্বজনপ্রীতি দেখা দেওয়ায় তিনি স্বেচ্ছায় এ ইউনিট থেকে পদত্যাগ করেছেন।

এখানে দাদা ভাইয়ের অনুলিপি তুলে ধরা হলো।
বরাবর
সম্মানিত সভাপতি
নাঙ্গলকোট প্রবাসি কল্যান ইউনিট
নাঙ্গলকোট কুমিল্লা।
বিষয়:- প্রবাসি কল্যান ইউনিটের পোষ্ট থেকে পদত্যাগের আবেদন।
সম্মানিত সভাপতি, আমি মোঃ হাসানুজ্জামান (দাদা ভাই ) সুইজারল্যান্ড প্রবাসী, হেসাখাল ইউনিয়ন, আমাকে প্রবাসি কল্যান ইউনিটের সিনিয়র সহ-সভাপতি হিসাবে যে মহান দায়িত্ব দেওয়ার জন্য সম্মানিত সভাপতি কে ধন্যবাদ।
আমি সিনিয়র সহ-সভাপতির মতো এই মহান দায়িত্ব পালন করা আমার পক্ষে অনেক কষ্ট কর। অতএব আমি আমার প্রবাসে দশ ঘন্টা চাকুরীর পাশা পাশি কিছু এলাকার সামাজিক বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা করি। যার কারনে আমি অনেক চিন্তে ভাবনা করে এই সিদ্ধান্তে নিয়েছি যে আমি সাংগঠনিক পদ থেকে অব্যহতি নিতে হবে। আমি প্রবাসি কল্যান ইউনিটের মাসিক চাঁদা সহ সকল ধরনে সিদ্ধান্তের সাথে একমত থাকবো সব সময় ।এবং সাংগঠনিক সকল নিয়ম কানুন মেনে আপনাদের সাথে সাধারণ একজন সদস্য হিসাবে থাকতে চাই। যদি আপনারা রাখেন।
অতএব আমার প্রানের সংগঠনের সফলতা কামনা করি। এবং আমি নিজ সিদ্ধান্তে আপনার নিকট আবেদন করলাম। দয়া করে আমাকে দায়িত্ব থেকে অব্যহতি দিয়ে আমার উপকার টুকু করবেন। সকলে কাছে দোয়া চাই।
নিবেদক,
মোঃ হাসানুজ্জামান দাদা ভাই সুইজারল্যান্ড প্রবাসী।

এ বিষয়ে প্রবাসী কল্যান ইউনিটের শীর্ষ কার্য নির্বাহী কমিটির কয়েকজন সদস্য, সিএন নিউজ২৪.কমের চেয়ারম্যান “এমডি শাহিন মজুমদার” কে ফোনে জানান, সংগঠনের অভ্যন্তরীণ বিষয়বস্তু নিয়ে নিয়মিত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অপপ্রচার এবং সাংগঠনিক নীতি বহির্ভূত কাজের সঙ্গে লিপ্ত থাকার অভিযোগে এই সংগঠনের কার্য্য নির্বাহী কমিটির দুই তৃতীয়াংশ সদস্যদের মতামতের ভিত্তিতে সংগঠনের সহ-সভাপতি হাসানুজ্জামানকে সংগঠন থেকে স্থায়ী বহিষ্কার করা হয়েছে।

উল্লেখ্যঃ- এই বহিষ্কার আদেশ কার্যকর করার পূর্বে সংগঠনের দুই তৃতীয়াংশ সদস্যের মতামত জরিপ করা হয়েছে এবং সকলেই উল্লেখিত ব্যক্তিকে বহিষ্কার করার জোর অনুরোধ করেছেন।
আমরা ব্যক্তিগত ভাবে মনে করি সংগঠনের সংবিধান লঙ্গনকারী যেকোন ব্যক্তি সাংবিধানিক আইনের উর্ধ্বে নয়,কার্য নির্বাহী কমিটির এই সিদ্ধান্ত ভবিষ্যতে সংগঠনের যেকোনো সদস্যকে নিয়ম বহির্ভূত কাজ থেকে বিরত রাখবে।

এদিকে সিএন নিউজের প্রধান সম্পাদক ও চেয়ারম্যান
এমডি শাহিন মজুমদারের সাথে এক ফোনালাপে দাদাভাই জানান, তিনি তিন মাস আগে পদত্যাগ করেছেন। তার অভিযোগ দুর্নীতি, স্বজনপ্রীতি ও অগনতান্ত্রিকভাবে সিদ্ধান্ত গ্রহণ ও তহবিল তশ্রুফ করার কারনেই তিনি পদত্যাগ করেন। এবং গত ০৮-০৩-২০১৮ তারিখ তিনি পদত্যাগের বিষয়ে নাঙ্গলকোট প্রবাসী কল্যাণ ইউনিট এর সাফায়েত হোসেন বড় সাফাকে জানান।

কিন্তু প্রবাসী কল্যাণ ইউনিটের একজন সদস্য জানান, তিনি আগে অব্যাহতি চেয়েছেন, এবং পদত্যাগ করেননি। এর আগে তিনি সাতমাস সাধারণ সম্পাদক ছিলেন তাহলে তিনি কিভাবে সংগঠন কে বিতর্কিত করেন? এবং ব্যার্থতার অভিযোগ আনেন, তাহলে এই ব্যার্থতা ওনার তখন পদত্যাগ করেননি কেনো?

উল্লেখ্য, নাঙ্গলকোট প্রবাসী কল্যাণ ইউনিটের কার্য নির্বাহী কমিটির এক জরুরি সিদ্ধান্তের ভিত্তিতে গতপরশু জানানো হয় যে, সংগঠনের সংবিধান বিরোধী কার্যকলাপ ও শৃঙ্ক্ষলা ভঙ্গের দায়ে (৭/৪) অনুচ্ছেদ অনুযায়ী তাকে বহিষ্কার করা হয়। বিষয়টি জানান সংগঠনের প্রচার সম্পাদক সোহেল রানা ইউসুফ, সিএন নিউজের প্রধান কে মুঠোফোন ও বহিস্কারের পেপার এসএমএস এর মাধ্ামে নিশ্চিত করেন |

Comments

comments

Powered by Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *