শনিবার, সেপ্টেম্বর ২২

পানির দাবিতে ইবি ছাত্রীদের প্রকৌশন অফিস ঘেরাও

সিএন নিউজ ইবি নিজস্ব প্রতিনিধি, এম এইচ কবিরঃ-
ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) পানির দাবিতে প্রকৌশন অফিস ঘেরাও করেছে ছাত্রীরা। বেগম খালেদা জিয়া হলে পানির সঙ্কট দেখা দেয়ায় প্রকৌশল অফিস ঘেরাও করেছে আবাসিক ছাত্রীরা।
শনিবার (১২ মে) সকাল ৯টায় প্রকৌশল ভবেনর সামনের রাস্তা অবরোধ করেন। এসময় ছাত্রীরা হল প্রভোস্টের পদত্যাগ দাবি করেন।
প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, খালেদা জিয়া হলের আবাসিক ছাত্রীরা পানি সংকট, পানি অনুপযোগী পানির সমস্যা সমাধানের দাবিতে প্রকৌশল ভবন ঘেরাও করে। সকাল ৯টার সময় আবাসিক ছাত্রীরা অফিসের সামনের রাস্তায় বসে থাকে । এ সময় ছাত্রীরা হলের রুমে সাপ এবং বিষাক্ত পোকামাকড়ের সমস্যা, খাবারের সমস্যা, আবাসিক শিক্ষকদের নিয়মিত হলে না থাকাসহ বিভিন্ন সমস্যার কথা তুলে ধরেন।
এ সময় হলের ছাত্রীরা জানায়, প্রায় এক মাস থেকে হলে ঠিকমত পানি থাকে না। মেয়েদের বাথরুমে এক মুহূর্ত পানি না থাকলে কতটা সমস্যা হয় তা আমরা হল কর্তৃপক্ষকে বোঝাতে ব্যর্থ হয়েছি। হল প্রভোস্ট আমাদের কথা শুনতে আন্তরিক নয়। তাই আমরা বাধ্য হয়ে অফিস অবরোধ করেছি।
অবরোধের সময় প্রক্টর অধ্যাপক মাহবুবর রহমান ঘটনা স্থলে উপস্থিত হলে ছাত্রীরা অভিযোগ করে বলেন, “হলে আবাসিক শিক্ষকরা নিয়মিত আসে না। অভিযোগ খাতায় অভিযোগ লেখা হলেও প্রভোস্ট কোনো ব্যবস্থা নেননি। যে অভিভাবক আমাদের সমস্যার কথা শুনতে চান না এমন অভিভাবক আমাদের দরকার নেই।” এসময় প্রক্টর সমস্যা সমাধানের জন্য ছাত্রীদের আশ্বস্ত করেন।
হল প্রভোস্ট অধ্যাপক অশোক কুমার চক্রবর্তী এবিষয়ে বলেন, “এক মাস থেকে সমস্যার অভিযোগটি সঠিক নয়। এক সপ্তাহ থেকে এ সমস্যা হচ্ছে। হলের পাম্পের সুইচ নষ্ট হয়েছিল। সমস্যার কথা প্রকৌশল অফিসকে জানালে তারা দায়িত্ব নিয়েছিল। আর গতকাল (শুক্রবার) সারাদিন বিদ্যুৎ না থাকায় পানি উঠাতে পারেনি।” তবে হলে আবাসিক শিক্ষকরা নিয়মিত না থাকার বিষয়টি তিনি এ মুহূর্তে বলতে পারছেন না বলে জানান।
প্রধান প্রকৌশলী (ভারপ্রাপ্ত) আলিমুজ্জামান টুটুল বলেন, “খালেদা জিয়া হলের পানির সমস্যা সমাধান করা হয়েছিল। কিন্তু তা স্থায়ী হয়নি। আমরা যতদ্রুত সম্ভব ব্যবস্থা নেব।”

Comments

comments

Powered by Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *