সোমবার, মে ২১

বোদায় কালবৈশাখীর তান্ডব : ফসলের ক্ষেত, স্কুল ও বসতবাড়ীর ব্যাপক ক্ষতি

মোঃ সাইফুল্লাহ হোসেন রুহিয়া প্রতিনিধিঃ বোদায় গতকাল রাতের কালবৈশাখীর তান্ডবে বদলে গেলে উপজেলার মাড়েয়া ও বড়শশী ইউনিয়নের ফসলের ক্ষেত, গাছপালা, স্কুল ও বসতবাড়ীর চিত্র। পুরো এলাকাজুড়ে পথে পথে পড়ে রয়েছে বড় বড় গাছপালা, ফসলের ক্ষেত দেখে বোঝার উপায় নেই যে গতকালও ছিল এটি ফসলের মাঠ। মাঠ জুরে এখন শুরু কৃষকের হাহাকার ও আহত মানুষের আত্বনার্থ। ক্ষনেই যেন পাল্টে দিয়েছে সকল চিত্র।

গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে কালবৈশাখীর তান্ডব দেখেছে মাড়েয়া ও বড়শশী ইউনিয়নের মানুষ। কয়েক মিনিটের তান্ডবে ফসলের মাঠ নষ্ট হয়ে গেছে, বড় বড় গাছপালা ও ডালপালা ভেঙ্গে পড়েছে। কাঁচা ঘর বাড়ী উড়ে গিয়ে পড়েছে অনেক দুুরে। এতে করে ফসলের ক্ষয়ক্ষতির পাশাপাশি অনেক মানুষ আহত হয়েছে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, উপজেলার মাড়েয়া ইউনিয়ন ও বড়শশী ইউনিয়নের উপর দিয়ে বয়ে যাওয়া এই ঝড়ে সবচেয়ে বেশি ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। বেশির ভাগ কাাঁচা বাড়ীঘরের ক্ষতি হয়েছে। কারো ঘরের চাল নেই তো কারো ঘরের বারান্দা নেই। ঘরের উপর পড়ে রয়েছে বড় বড় আমগাছ ও ইউক্যালিপটাস গাছ। ঝড়ের ফলে ধানের মাঠ, শশা ক্ষেত ও বাদামের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। বেশিরভাগ ধান ক্ষেতের গাছ রয়েছে নেই ধান। শশা ক্ষেতের মাচাং রয়েছে গাছ নেই।

এছাড়াও সবচেয়ে বেশি ক্ষতির শিকার হয়েছে বড়শশী ইউনিয়নের বড়শশী বিএল বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের। বিদ্যালয়টি ঘুরে দেখা যায়, বেশির ভাগ ক্লাস রুমের চিনের চালা উড়ে গেছে, বারান্দার উড়ে গেছে যা আর খুজে পাওয়া যায়নি। স্কুলের বারান্দার পিলার উড়ে গিয়ে পাশে^র একটি বাড়ীতে পড়লে হাকিম উদ্দিন নামের ব্যক্তি আহত হয়েছে। এছাড়াও ৩ টি ক্লাস রুমের দেয়াল ধসে পড়েছে। ঝড়ের কারণে ক্ষতিগ্রস্থ্য এলাকায় এখন পর্যন্ত বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ রয়েছে।

ইতিমধ্যে ক্ষতিগ্রস্থ্য এলাকা পরিদর্শন করেছেন পঞ্চগড়-২ আসনের সংসদ সদস্য এ্যাড: নুরুল ইসলাম সুজন। তিনি বড়শশী বিএল বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের মেরামতের খরচ বহন করার ঘোষনা দেন। অপর দিকে তিনি মুজিব ইন্দিরা মহাবিদ্যালয় পরিদর্শন করে একটি একাডেমিক ভবন নির্মানের ঘোষনা দেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার সৈয়দ মাহমুদ হাসান,মুজিব ইন্দিরা মহাবিদ্যালয় এর অধক্ষ মোঃ আমিনুল ইসলাম,মোঃ রশিদলি ইসলাম বোদা পৌরসভার কাউন্সিলর সহ উপজেলা ও স্থানীয় আওয়ামীলীগের নেত্রীবৃন্দ।

Comments

comments

Powered by Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *