বৃহস্পতিবার, জুন ২১

মুস্তাফিজের সুপার ওভার, যে ওভারে ম্যাচ হারল লাহোর!

স্পোর্টস ডেস্কঃ-
মুস্তাফিজের পিএসএল সফরের শেষটা শুভকর হলো না। লাহোর কালান্দার্সের হয়ে শুক্রবার রাতই শেষ ম্যাচ ছিল মুস্তাফিজের। এ ম্যাচে বল হাতে ব্যর্থ ছিলেন তিনি। তবে খেলা সুপার ওভারে গড়ালেও বল করার দ্বায়িত্ব পান মুস্তাফিজ। কিন্তু সেখানেও তিনি ব্যর্থ হন।

শারজাহ ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে ৯ উইকেটে ১২১ রান করে ইসলামাবাদ ইউনাইটেড। জবাবে ইনিংসের শেষ বলে শেষ উইকেট হারিয়ে লাহোরও করে ১২১ রান। টাই হওয়ায় ম্যাচ গড়ায় সুপার ওভারে।
সুপার ওভারে প্রথমে ব্যাটিং করে মুস্তাফিজের লাহোর কালান্দার্স। তাদের হয়ে ক্রিজে নামেন ম্যাকালাম ও ফাকরান। আর ইসলামাবাদ ইউনাইটেড হয়ে বোলিংয়ে আসেন মোহাম্মদ স্যামি।
সুপার ওভারের প্রথম বলেই ছয় মেরে শুরু করেন ম্যাকোলাম। কিন্তু দ্বিতীয় বলেই আউট হয়ে যান তিনি। ম্যাকোলামের জায়গায় ব্যাটিংয়ে নামা কামরান আকমল বলে ব্যাট না লাগাতে পারায় ডট বল হয়। চতুর্থ বলে তিনি ছয় মারেন। পঞ্চম বলটিতে আকমল ১টি রান নেয়। আর ইনিংসের শেষ বলটিতে ফাকরান দুই রান নিতে এক ওভার শেষ ইউনাটের লক্ষ্য দাড়ায় ১৬ রান।

ইসলামাবাদকে ১৬ রান টার্গেট দিয়ে লাহোর শিবিরকে বেশ চনমনেই লাগছিল। তবে কে বল করবেন তা নিয়ে ছিল ধোঁয়াশা। প্রথমে নিজের ওভারে ৩৯ রান দেওয়া মুস্তাফিজকে নিয়ে ঝুঁকি নিয়েছিল ঠিকই। কিন্তু মুস্তাফিজ হতে পারেননি নায়ক।

প্রথম বলে আন্দ্রে রাসেল নেন এক রান। মুস্তাফিজের স্লোয়ার ঠিকমত পিক করে দ্বিতীয় বলে লং অন দিয়ে ছক্কা হাঁকান আসিফ আলী। একটুর জন্য অবশ্য ম্যাককালামের হাতে বল আসেনি। নয়তো শুরুতেই এগিয়ে যেত লাহোর। তৃতীয় বল ডট। চতুর্থ বলটিও ডট হতে পারত। কিন্তু উইকেটের পিছনে দাঁড়িয়ে দিনেশ রামদিন বল তালুবন্দি করতে ব্যর্থ।

প্রান্ত বদলে রাসেল ফিরেন স্ট্রাইকে। ওয়াইড ইয়র্কার করতে গিয়ে মুস্তাফিজ পরের বলটি দেন ওয়াইড। পঞ্চম বলে টপ এজে চার মারেন রাসেল। শেষ বলে দরকার ৩ রান। এবার বাঁহাতি পেসার দিলেন স্লোয়ার। কিন্তু কাজ হলো না। হার্ডহিটার রাসেল শরীরের পুরো শক্তি দিয়ে বল পাঠালেন লং অন দিয়ে বাউন্ডারির বাইরে। ১৯ রান তুলে ম্যাচ জিতে নেয় ইসলামাবাদ ইউনাইটেড।

Comments

comments

Powered by Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *