মঙ্গলবার, জুলাই ১৭

রাখাইনে প্রমাণ সংগ্রহে জাতিসংঘের তদারকির প্রস্তাব ব্রিটিশ দূতের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:-

জাতিসংঘে যুক্তরাজ্যের রাষ্ট্রদূত কারেন পিয়ার্স বলেছেন, রাখাইনে সেনা অভিযানে রোহিঙ্গাদের ওপর চালানো বর্বরতার প্রমাণ সংগ্রহে মিয়ানমারকে কীভাবে সহযোগিতা করা যায়, সে বিষয়টি নিরাপত্তা পরিষদ ভাবতে পারে।

গতবছর ২৫ অগাস্ট থেকে মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর ওই অভিযানে গ্রামে গ্রামে হত্যা, ধর্ষণ, জ্বালাও-পোড়াওয়ের ভয়াবহ বিবরণ এসেছে প্রাণে বেঁচে যাওয়ার রোহিঙ্গাদের কাছ থেকে। জাতিসংঘ ওই অভিযানকে বর্ণনা করে আসছে ‘জাতিগত নির্মূল অভিযান’ হিসেবে।

রোহিঙ্গাদের পরিস্থিতি সরাসরি দেখতে বাংলাদেশ ও মিয়ানমারে চার দিনের সফর শেষে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের ১৫ সদস্য দেশের প্রতিনিধিরা ফিরে যাওয়ার আগে বুধবার রয়টার্সের সঙ্গে এ বিষয়ে কথা বলেন কারেন পিয়ার্স।

তিনি বলেন, “এখন নিরাপত্তা পরিষদে বসে আমাদের সবচেয়ে ভালো এবং বাস্তবায়নযোগ্য সমাধানটা আমাদের খুঁজে বের করতে হবে, যাতে প্রমাণ সংগ্রহ করে মিয়ানমার কর্তৃপক্ষ বা কোনো ধরনের আন্তর্জাতিক ব্যবস্থাপনার কাছে তা হস্তান্তর করা যায়।”

এর আগে ব্রিটিশ দূত সাংবাদিকদের বলেন, রাখাইনে তদন্ত করতে গেলে জবাবদিহিতার স্বার্থেই প্রামাণিক মান নিশ্চিত করতে হবে। দুইভাবে এটা করা সম্ভব। আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতের পরামর্শ অনুযায়ী ওই তদন্ত হতে পারে, অথবা মিয়ানমার সরকার নিজেরাই সেটা করতে পারে।

Comments

comments

Powered by Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *