বৃহস্পতিবার, জুলাই ১৯

Month: ফেব্রুয়ারি ২০১৮

বিএনপি এতোটা কৌশলে আন্দোলন করবে, সরকার ভাবতেও পারে নি

বিএনপি এতোটা কৌশলে আন্দোলন করবে, সরকার ভাবতেও পারে নি

সিএন নিউজ ডেস্কঃ– আমার কাছে মনে হচ্ছে সরকার ও বিরোধী দল উভয়ই রাজনৈতিক খেলা খেলছে। তবে সরকারি দলের বিষয়টা স্পষ্ট অন্য দলের বিষয়গুলো স্পষ্ট নয়। আমার কছে মনে হয় বিএনপির বিষয়টা আরো বেশি স্পষ্ট। কেননা তাদেরকে তো নির্বাচন করতেই হবে। ২০১৪ সালে আওয়ামী লীগের জন্য খুবই সুবিধাজনক অবস্থান ছিলো। কেননা বিএনপি নির্বাচনে যায়নি। এবারতো বিএনপিকে নির্বাচনে যেতেই হবে। সুতরাং আওয়ামী লীগের জন্যও বিষয়টা খুব একটা সুবিধা হবে না। মঙ্গবার দিবাগত রাতে চ্যানেল আইয়ের আজকের সংবাদপত্র অনুষ্ঠানে এমন মন্তব্য করেন সাংবাদিক, গবেষক ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক আফনাস চৌধুরী। তিনি আরো বলেন, সরকার হয়তো ভাবে নি যে, খালেদাকে জেলে পাঠানোর পরে বিএনপি এতোটা কৌশলে আন্দোলন করবে। যদি তারা বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতো তাহলে আওয়ামী লীগের জন্য খুব সুবিধা হতো। কিন্তু বিএনপি সেটা করেনি। তাছাড়া বর্তমান সরকার ও নির্বাচন কমিশন জনগণের মাঝে এমন কোন
‌নি‌ভে গে‌লো জ্বলন্ত প্র‌দীপ

‌নি‌ভে গে‌লো জ্বলন্ত প্র‌দীপ

মহসীনুর রহমান সজীব- জনাব মোঃ জুলফিকার আলী ভূট্টো। ১লা সেপ্টেম্বর ১৯২৩ সালে নাঙ্গলকোট উপজেলার আদ্রা গ্রামের এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জুলফিকার আলী ভূট্টো সাহেবের জন্ম হয়। উনার পিতা মৌলভী হযরত মোঃ এনায়েত উল্যাহ (রহঃ) ছিলেন ঐতিহ্যবাহী নোয়াখালী আলীয়া মাদ্রাসার একজন মুহাদ্দিস। চট্টগ্রাম থেকে কামিল পাশ করার পর তিনি উক্ত মাদ্রাসায় যোগদান করেন। হাজার হাজার শিক্ষার্থীর মাঝে কুরআন ও হাদিসের আলো বিতরণ করে এখান থেকেই অবসর গ্রহণ করেন। চাকুরির অবসরে তিনি নিজ এলাকায় ইসলাম ধর্ম প্রচারে নিজেকে নিয়োজিত রাখেন। উনার সুযোগ্য পুত্র ভুট্টো সাহেব আদ্রা থেকে প্রাথমিক, লাকসাম থেকে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক সমাপ্ত করে লক্ষণপুর হাই স্কুলে সহকারি শিক্ষক পদে যোগদান করেন। একটানা ১৪ বছর চাকুরি শেষে তিনি হাই স্কুল থেকে অবসর নিয়ে লাকসাম থানার একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক পদে যোগদান করেন। এক ব
বাংলাদেশ ক্রিকেটের জন্য আরেকটি খুশির খবর দিলেন আকরাম খান !

বাংলাদেশ ক্রিকেটের জন্য আরেকটি খুশির খবর দিলেন আকরাম খান !

  স্পোর্টস ডেস্কঃ- বাংলাদেশ জাতীয় দলের মত ব্যাস্ত থাকবে বাংলাদেশ ‘এ’। বছরটা বেশ ব্যস্ততার মধ্যেই কাটবে বাংলাদেশ ‘এ’ ক্রিকেট দলের। একটি দুটি নয়, চার মাসের ব্যবধানে খেলতে হবে টানা তিনটি সিরিজ। এপ্রিলে স্বাগতিকদের সাথে ওয়ানডে ও চার দিনের ম্যাচ খেলতে এপ্রিলে আসছে শ্রীলঙ্কা। ঘরের মাঠে সিরিজ শেষে জুনে সিরিজে খেলতে যাচ্ছে আয়ারল্যান্ড সফরে। এরপর দেশে ফিরতে না ফিরতেই ওয়েস্ট ইন্ডিজকে আতিথ্য দিতে ব্যস্ত হয়ে পড়তে হবে। বুধবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) সংবাদ মাধ্যমকে এসব তথ্য দেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের প্রধান আকরাম খান। আকরাম বলেন, ‘এ টিমের তিনটা ট্যুর হচ্ছে। সেটা আপনার শ্রীলঙ্কা আসবে, বাংলাদেশ দল আয়ারল্যান্ড যাবে তারপর আবার ওয়েস্ট ইন্ডিজ আসবে। এবার যেহেতু টপ ক্লাস তিনটা ‘এ’ টিমের সাথে খেলবে আমার মনে হয় এখানে প্লেয়ারদের জন্য ভালো একটা সুযো্গ। যদি এখানে পারফরম্য
মাকে কারাবন্দী অবস্থা থেকে মুক্ত করতে যা করতে যাচ্ছেন তারেক !

মাকে কারাবন্দী অবস্থা থেকে মুক্ত করতে যা করতে যাচ্ছেন তারেক !

  অনলাইন ডেস্কঃ- দুর্নীতি মামলায় কারাবন্দী বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার আইনজীবীদের ব্যর্থতার বিষয়টি সামনে আসার পর খোদ খালেদা জিয়া এবং তারেক রহমান উদ্যোগী হয়েছেন। বিএনপির আইনজীবীদের প্রতি অভিযোগ, খালেদার জামিন নিতে তারা ব্যর্থ হয়েছেন। উচ্চ আদালতে জামিনের ক্ষেত্রে মামলার নথি-পত্র আসার যে একটা বিষয় রয়েছে সেটি তারা কিভাবে এড়িয়ে গেলেন তা নিয়ে সমালোচনা চলছে। এর প্রেক্ষিতে মঙ্গলবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) ড. কামাল হোসেনের সহায়তা চায় বিএনপি। জানা গেছে, খোদ খালেদা জিয়াই নাকি ড. কামালকে তার মামলায় আইনজীবী বানানোর জন্য আত্মীয়দের মাধ্যমে বিএনপির শীর্ষ নেতাদের নির্দেশ দিয়েছিলেন। কিন্তু ড. কামাল তাতে রাজি হননি। এদিকে নিজের মাকে কারাবন্দী অবস্থা থেকে মুক্ত করতে এবার বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসন তারেক রহমান উদ্যোগী হয়েছেন বলে জানা গেছে। তিনি চাইছেন লন্ডনের কোনো আইনজীবী খালেদা জিয়ার মাম
আ’লীগে একাধিক, বিএনপিতে একক প্রার্থী, মাঠ গোছাতে ব্যস্ত জাতীয় পার্টি

আ’লীগে একাধিক, বিএনপিতে একক প্রার্থী, মাঠ গোছাতে ব্যস্ত জাতীয় পার্টি

  কুমিল্লা উত্তর প্রতিনিধি- একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে ঘিরে কুমিল্লা-১ (দাউদকান্দি-মেঘনা) আসনে নির্বাচনী আমেজ বিরাজ করছে। বড় দল আওয়ামী লীগ, বিএনপি এবং জাতীয় পার্টির সম্ভাব্য প্রার্থীরা নির্বাচনী মাঠে সক্রিয় রয়েছেন। তৃণমূলের পাশাপাশি কেন্দ্রের সঙ্গেও যোগাযোগ বাড়িয়েছেন প্রার্থীরা। রাস্তার মোড়ে মোড়ে ঝুলছে প্রার্থীদের ছবিসংবলিত পোস্টার-ব্যানার। যোগ দিচ্ছেন বিভিন্ন সমাবেশ ও ধর্মীয় অনুষ্ঠানে। ভোটাররাও প্রার্থীদের নিয়ে আগ্রহী হয়ে উেেছে। তবে নীরব থেকে কৌশলে মাঠ গুছিয়ে নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছে জাতীয় পার্টি। আসনটি মুলত বিএনপির দুর্গ হিসেবে পরিচিত। স্বাধীনতার পর ১৯৭৩ সাল থেকে ২০০১ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচন পর্যন্ত আওয়ামী লীগ এ আসনে জয়ের মুখ দেখেনি। নব্বইয়ের রাজনৈতিক পটপরিবর্তনের পর ১৯৯১ সালসহ ১৯৯৬ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারি ও ১২ জুন এবং ২০০১ সালের নির্বাচনে বিজয়ী হন বিএনপির স্থায়ী কমিটির স
জাতিসংঘে বাংলা চাই এই দাবিতে ইবিতে অনলাইন আবেদনের উদ্বোধন

জাতিসংঘে বাংলা চাই এই দাবিতে ইবিতে অনলাইন আবেদনের উদ্বোধন

সিএন নিউজ ইবি প্রতিনিধি, এম.এইচ.কবীরঃ- ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) জাতিসংঘের ৭ম দাপ্তরিক ভাষা হোক বাংলা এই দাবিতে র‌্যালী ও অনলাইন আবেদন শুরু হয়েছে। বুধবার, ২৮ই ফেব্রুয়ারি সকালে “জাতিসংঘে বাংলা চাই” এই শ্লোগানকে সামনে রেখে ‘জাগো নিউজ-২৪ ডটকম’ এর আয়োজনে এবং ‘প্রাণ’র সহযোগিতায় ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে র‌্যালি শেষে শহীদ মিনারে জাতিসংঘের ৭ম দাপ্তরিক ভাষা হোক বাংলা- এই দাবিতে অনলাইন আবেদনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান হয়। জাগো নিউজ ২৪ ডটকম ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি ফেরদাউসুর রহমান সোহাগের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (ভার:) এস এম আব্দুল লতিফ, প্রক্টর প্রফেসর ড. মোঃ মাহবুবর রহমান, আইআইই আর এর পরিচালক প্রফেসর ড. মোহাঃ মেহের আলী, ইংরেজি বিভাগের প্রফেসর ড. মামুনুর রহমান, টিএসসিসি’র পরিচালক ড. বাকী বিল্লাহ বিকুল
সচেতন নাগরিক হলে, দয়া করে পড়বেন.!

সচেতন নাগরিক হলে, দয়া করে পড়বেন.!

  সোহাগ খাঁন ইউরোপ প্রতিনিধিঃ- “আপনি রাস্তা দিয়ে হাঁটলে অনেক যুবক আপনার কোমরের দিকে আর আপনার বুকের দিকে তাকিয়ে চোখের স্বাদ পায়। তাতে আপনার ভালো লাগে। আপনার গালে টোল পড়া গর্তে অনেক ছেলে নিজেকে কল্পনায় ভাসিয়ে নেয়, তাতে আপনি আনন্দ পান।” . “বুকের উড়না সরিয়ে রাস্তায় হেঁটে বহু যুবকের দৃষ্টি কেড়ে নিতে পারেন মুর্হূতে, এটা আপনার তৃপ্তি! আপনি প্রতি মাসে বিউটি পার্লারে যে টাকা খরচ করেন সে টাকায় কোন গরীব রিকশা চালকের একমাসের সংসার খরচ চলে যায়।” . —হয়তো সেটা আপনার বাহাদুরি! . “আপনি রাস্তায় হাঁটার সময় শত যুবক আড়- চোখে আপনার দিকে তাকায়! ওরা আপনাকে কিছু সময়ের জন্য কাছে পেতে চায়, সারাজীবনের জন্য নয়।” . “আপনি কি জানেন?– কোন সভ্য মা আপনাকে তার পুত্রবধু হিসেবে চাইবেনা! বরং কিছু সময়ের জন্য কোন ছেলে আপনার মৌহে হারিয় যাবে। যেমনটা রাস্তার পাশে হকারে কোন শার্ট ভালো লাগলে আমরা
একি শুরু করলেন সৌদি নারীরা “পড়লেই অবাক হবেন” !

একি শুরু করলেন সৌদি নারীরা “পড়লেই অবাক হবেন” !

সিএন নিউজ আন্তর্জতিক প্রতিবেদকঃ- সৌদি মহিলারা পুরুষদের সাথে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে মোবাইল বিক্রয় এবং মেরামতের কাজ করতে শুরু করেছে। বিঃদ্রঃ ২০১৬ সাল থেকে সৌদি মহিলাদের কে মেরামত এর কাজ শিখানোর জন্য সৌদি সরকার কাজ শুরু করেছিলো, সৌদি সরকার সৌদি আরবের বিভিন্ন অঞ্চলে ৬২০০ মহিলাকে কারিগরি প্রশিক্ষণ দিয়েছে যাতে মোবাইল মেরামত ও বিক্রয় করে নিজের পায়ে দাড়াতে পারে। মহিলাদের মধ্যে বেকারত্বের হার কমানের লক্ষ্যে এই উদ্যোগ নেয়া হয়। উল্লেখ্য যে মোবাইলের দোকানে বিদেশীদের নিষেধ করা হয়। সূত্রঃঅনলাইন টেলিভিশন; Akhbar Al Aan
বিদেশে অনুষ্ঠানের নামে অভিনেত্রীর সঙ্গে এ কি হল!

বিদেশে অনুষ্ঠানের নামে অভিনেত্রীর সঙ্গে এ কি হল!

সিএন নিউজ আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ- পুলিশে প্রতারণার অভিযোগ দায়ের করলেন টেলিভিশন অভিনেত্রী শিখা সিং৷ অভিযোগ, গত বছর ঘানায় একটি ইভেন্টে গিয়েছিলেন তিনি৷ সেখান থেকে তাঁর ১১ লাখ টাকা পাওয়ার কথা ছিল৷ কিন্তু এখনও সে টাকা তিনি পাননি৷ এই নিয়ে প্রতারণার অভিযোগ দায়ের করেছেন শিখা৷ অভিযোগে অভিনেত্রী শিখা সিং বলেছেন, ২০১৭ সালের মে মাসে দীপক চতুর্বেদী তাঁকে একটি ইভেন্টের কথা বলেন৷ ইভেন্টটি ঘানায় হওয়ার কথা ছিল৷ এর জন্য শিখার সঙ্গে ওই ইভেন্ট কোম্পানির ১২ লাখ টাকার চুক্তি হয়৷ অ্যাডভান্স হিসেবে তাঁকে দেওয়া হয় ৭০ লাখ টাকা৷ এরপর কিছুদিনের জন্য পিছিয়ে যায় ইভেন্টটি৷ ২০১৭ সালের জুলাই মাসে ইভেন্টটি হওয়ার কথা ছিল৷ কিন্তু তা কয়েকদিনের জন্য পিছিয়ে যায়৷ হয় ২০১৭ সালের নভেম্বরে৷ কিন্তু তারপর শিখাকে সম্পূর্ণ টাকা দেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ৷ শিখার মতে, তিনি ওই কোম্পানির সঙ্গে যোগাযোগ করেন৷ কিন্তু তা
এবার সৌদি আরবে ১৮০ দিনের বেশি ভিজিট ভিসা নয় !

এবার সৌদি আরবে ১৮০ দিনের বেশি ভিজিট ভিসা নয় !

আন্তর্জাতিক প্রতিনিধি সিএন নিউজ২৪.কমঃ- জাওজাতের এক ঘোষণাতে জানা গেছে, ১৮০ দিন অর্থাৎ ৬ মাসের বেশি ভিজিট ভিসার মেয়াদ আর বাড়ানো যাবে না । এবং প্রথম ৯০ দিন শেষ হবার অন্তত ১ সপ্তাহ আগে পুনরায় ৯০ দিনের জন্য আবেদন করতে হবে । জাওজাতের বিবৃতিতে আরো বলা হয়েছে, হজ্জ এবং উমরাহ পালনকারীরা যেন তাদের ভিসার বৈধতা বিষয়ে সর্বোচ্চ সচেতন থাকেন । সঠিক পারমিট ছাড়া কেউ হজ্জ করতে চাইলে বা উমরাহ ভিসাতে এসে কেউ অবৈধ হয়ে গেলে, সৌদি আরবে তিনি ১০ বছরের জন্য নিষিদ্ধ হবে।
প্রবাসে কষ্টে ও মনভাঙ্গা, এক প্রবাসীর একটি চাকরির জন্য।

প্রবাসে কষ্টে ও মনভাঙ্গা, এক প্রবাসীর একটি চাকরির জন্য।

আসসালামু আলাইকুম" আমি খুব দরিদ্র ঘরের একটি ছেলে। আমি BBA তে ভর্তি হয়েছিলাম,কিন্তু টাকার অভাবে পড়া লেখা করতে পারি নাই,কারন আমার আব্বু এক জন সামান্য দোকানদার। আর তার ইনকাম দিয়ে আমাদের পুরো পরিবার চলত। আব্বুর একটু সমস্যা হত সবাইকে চালিয়ে নিতে,তাই আব্বু আমাকে দেশের বাইরে আসার কথা বলে। আমি প্রথম রাজি হই না, পরে পরিবারের সবার কথা ভেবে রাজি হই। আব্বু তার বন্ধুদের কাছ থেকে ও ব্র্যাক bank থেকে টাকা তুলে সৌদি আরব পাঠিয়েছে আমাকে ।সৌদি আসার পর ৯ মাস এক পরিচিত ভাইয়ের ওয়ার্কশপে কাজ করি । এখন ওই পরিচিত ভাইয়ের ওয়ার্কশপ ছেড়ে চলে যাব। ওয়ার্কশপে কাজ হয় না বললেই চলে। তাই আমাকে অন্য জায়গা দেখতে বলেছে। এই দিকে কফিল ১ মাস এর মধ্যে কাফেলা হতে বলছে না হলে হুরুব মারবে। তাই বাংলাদেশী প্রবাসী সব ভাইকে আমার অনুরোধ,একটু সাহায্য করার জন্য, যদি কোন কোম্পানি বা ভাল কাজ থাকে। আপনাদের মাধ্যমে যদি হয় আমি ধন
সবার সঙ্গে তর্ক করা ঠিক নয় !

সবার সঙ্গে তর্ক করা ঠিক নয় !

শরীফ উদ্দিন ভূঁইয়া- একটা গাধা আর একটা শিয়াল বনের মধ্যে ঝগড়া শুরু করলো। গাধা বললোঃ ঘাস হলুদ! শিয়াল বললোঃ না, ঘাস সবুজ! বিতর্ক চরমে উঠলে, তারা বিচারের জন্য বনের রাজা সিংহের কাছে গেলো। সিংহ সব শুনে শিয়ালকে পূর্ণ এক মাস বন্দী রাখার এবং গাধাকে মুক্তি দেয়ার আদেশ দিলো। শিয়াল রায় শুনে সিংহকে প্রশ্ন করলোঃ এটা কি ন্যায়বিচার হলো? ঘাস কি সবুজ নয়??? সিংহ উত্তর দিলোঃ ঘাস অবশ্যই সবুজ। কিন্তু আমি তোকে বন্দী রাখার আদেশ করেছি কারণ তুই গাধার সাথে তর্ক করেছিস! সারমর্মঃ আজকাল আমরা অনেকেই অযথা তর্কে জড়িয়ে পড়ি। এমন মানুষের সাথে আমরা তর্কে লিপ্ত হই যাদের ব্যাপারে আমরা জানি যে, পৃথিবীর সকল প্রমাণও যদি তাদের মতবাদের বিপক্ষে দাঁড় করানো হয়, তবুও তারা তাদের ভুল স্বীকার করবে না।
কুমিল্লার চান্দিনায় স্কুলের পিকনিকের বাস খাদে পড়ে আহত ২৫

কুমিল্লার চান্দিনায় স্কুলের পিকনিকের বাস খাদে পড়ে আহত ২৫

আল্ আমিন শাহেদঃ কুমিল্লার চান্দিনায় সোনারগাঁওয়ের পাড়াবো আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের পিকনিক বাস খাদে উল্টে পড়ে গিয়ে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকসহ অন্তত ২৫জন আহত হয়েছে। তবে ওই পিকনিক বাসে বিদ্যালয়ের কোন শিক্ষক বা বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ছিল না। মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮ টায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লার চান্দিনা উপজেলাধীন নূরীতলা এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। আহতদের মধ্যে সাত জনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য কুমিল্লা ও ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। আহত শিক্ষার্থীরা হলো নূরে আলম, শিলা, সুমনআরা, রিয়া, সুমাইয়া, সানজিদা, সাজিদ, শামীম, ঈশা, সুমন, সাইদুল ইসলাম, মাসুদ, ইমরান, সজিব, রিয়েল এবং অভিভাবক শিলা (২৫) ও ড্রাইভার জাকির (২৮) সহ অজ্ঞাত আরও ৭-৮জন। শিক্ষার্থী মাসুদ জানায়, তারা সকলে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলার পাড়াবো আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। এবারের এসএসসি পরীক্ষা শেষে মঙ্গলবার সকালে তারা ৪২জন শিক্ষা
কুমিল্লা সহ ৩৫ উপজেলায় নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ দেবে সরকার

কুমিল্লা সহ ৩৫ উপজেলায় নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ দেবে সরকার

সিএন নিউজ ডেস্কঃ-- দেশের পূর্বাঞ্চলের ৩৫ উপজেলায় নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ দিতে ৫ হাজার ৮০৪ কোটি টাকা ব্যয় করবে সরকার। ‘পূর্বাঞ্চলীয় গ্রিড নেটওয়ার্কের পরিবর্ধন এবং ক্ষমতায়ন’ প্রকল্পের আওতায় এই অর্থ ব্যয় করা হবে। বৃহত্তর কুমিল্লা, নোয়াখালী ও চট্টগ্রাম অঞ্চলে নির্ভরযোগ্য বিদ্যুৎ সরবরাহ নিশ্চিত করা এবং ক্রমবর্ধমান চাহিদা পূরণে এ প্রকল্প নেয়া হয়েছে। মঙ্গলবার রাজধানীর শেরে বাংলা নগরে এনইসি সম্মেলন কক্ষে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি-একনেকের সভায় এ প্রকল্পের অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এছাড়া সভায় আরও ১৪টি প্রকল্প অনুমোদন দেয়া হয়েছে। ১৫টি প্রকল্পের মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ১৭ হাজার ৯৮৭ কোটি টাকা। সভায় সভাপতিত্ব করেন একনেক চেয়ারপারসন ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সভা শেষে এক ব্রিফিংয়ে পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেন, একনেক সভায় অনুমোদিত ১৫টি প্রকল্পের মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ১৭ হাজার ৯
মাধ্যমিক স্তরে মেয়েদের ঝরে পড়ার হার বেড়েছে

মাধ্যমিক স্তরে মেয়েদের ঝরে পড়ার হার বেড়েছে

সিএন নিউজ বিশেষ প্রতিবেদনঃ-- দুর্যোগকবলিত হওয়ায় সারা দেশে প্রায় ১৯ হাজার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান অচল হয়ে গেছে। এর মধ্যে সরকারি-বেসরকারি উভয় প্রতিষ্ঠান রয়েছে। মাধ্যমিক স্তরে মেয়ে শিক্ষার্থীদের ঝরে পড়ার হার বেড়েছে। তবে কলেজ পর্যায়ে মেয়েদের ঝরে পড়া কমেছে। মঙ্গলবার রাজধানীতে বাংলাদেশ শিক্ষা পরিসংখ্যান-২০১৭ এর খসড়া প্রতিবেদন নিয়ে এক কর্মশালায় এসব তথ্য তুলে ধরা হয়েছে। বাংলাদেশ শিক্ষাতথ্য ও পরিসংখ্যান ব্যুরো (ব্যানবেইস) এ কর্মশালার আয়োজন করে। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। খসড়া জরিপ প্রতিবেদন তুলে ধরেন ব্যানবেইসের পরিচালক মো. ফসিউল্লাহ। বক্তব্য দেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাদরাসা ও কারিগরি বিভাগের সচিব মো. আলমগীর। খসড়া পরিসংখ্যানে দেখানো হয়েছে, সারা দেশে ১০ ধরনের দুর্যোগে প্রায় ১৮ হাজার ৬৩৪টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের কার্যক্রম স্থবির হয়ে পড়েছে। এর মধ্যে সরকারি পর্যায়ে ৬১৮টি
এবার সৌদিতে উঠে যাচ্ছে মিনিবাস সার্ভিস !

এবার সৌদিতে উঠে যাচ্ছে মিনিবাস সার্ভিস !

  আন্তর্জাতিক প্রতিনিধি, সিএন নিউজ২৪.কমঃ রিয়াদ এবং জেদ্দার মিনিবাস সার্ভিসগুলো উঠে যাচ্ছে চিরতরে । শহরের অভ্যন্তরে বিভিন্ন রুটে চলা মিনিবাসের বদলেএখন চলবে নির্ধারিত উন্নত পাবলিক ট্রান্সপোর্ট স্যাপ্টকো ! শহরের যে কোন রুটে স্যাপ্টকোর ভাড়া নির্ধারিত হয়েছে ৩ রিয়াল । আজ মঙ্গলবার থেকে এ সার্ভিস পুরোদমে চালু হবার কথা । মিনিবাস চালাতো যেসব সৌদি নাগরিক তারা যদি স্যাপ্টকোর সঙ্গে যুক্ত হয়ে, মাসিক বেতনে কাজ করতে রাজি থাকে তাহলে সে সুযোগ দেবে প্রশাসন । কিংবা তাদের কর্মসংস্থান বা ব্যবসার জন্য সহযোগিতারও আশ্বাস দেয়া হয়েছে । সুত্রঃ আমরা সৌদি আরব প্রবাসী বাংলাদেশী
সামরিক বাহিনীতে যোগ দিতে পারবেন সৌদি নারীরা !

সামরিক বাহিনীতে যোগ দিতে পারবেন সৌদি নারীরা !

সিএন নিউজ২৪.কম আন্তর্জাতিক প্রতিনিধিঃ সৌদি আরবে এই প্রথমবারের মতো মেয়েদের সামরিক বাহিনীতে যোগ দেবার জন্য আবেদনপত্র ছাড়া হয়েছে। সম্প্রতি সৌদি আরবের সমাজে যে সব বড় পরিবর্তনের সূচনা হয়েছে - এ ঘোষণা হচ্ছে তার মধ্যে সর্বশেষ। দেশটির কিছু প্রদেশে সৈনিকের পদে সৌদি মেয়েদের জন্য আবেদন করার সুযোগ দিয়েছে দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় । এ মাসের শেষ নাগাদ পর্যন্ত আবেদনপত্র গৃহীত হবে। অবশ্য এই নারী সৈনিকদের ভুমিকা সম্পর্কে বলা হয়েছে যে তাদের সরাসরি যুদ্ধ করতে হবে না। তারা বরং কাজ করবেন নিরাপত্তা বিভাগে। সূত্রঃ সৌদি গেজেট
ইতিহাস ভেঙে ব্রিটিশ ইউনিভার্সিটির চ্যান্সেলর হলেন ড. মোহাম্মদ ইউনূস !

ইতিহাস ভেঙে ব্রিটিশ ইউনিভার্সিটির চ্যান্সেলর হলেন ড. মোহাম্মদ ইউনূস !

বিশেষ প্রতিনিধি- প্রফেসর মোহাম্মদ ইউনূস ব্রিটিশদের ইতিহাসের এক মাত্র নন ব্রিটিশ ব্যাক্তি । যিনি কোনো ব্রিটিশ ইউনিভার্সিটির চ্যান্সেলর হয়েছেন। আজ পর্যন্ত ব্রিটিশ ছাড়া অন্য কোনো জাতির মানুষকে তারা চ্যান্সেলর করে নাই। ব্রিটিশরা তাদের ইতিহাস ভেঙে আমাদের প্রফেসর ইউনূস কে সন্মান দেখিয়েছে। Glasgow Caledonian University তাকে এই সম্মাননা দেয় । অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ ইউনূস (জন্ম: ২৮ জুন, ১৯৪০) বাংলাদেশী নোবেল পুরস্কার বিজয়ী ব্যাংকার ও অর্থনীতিবিদ। তিনি চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের একজন শিক্ষক। তিনি ক্ষুদ্রঋণ ধারণার প্রবর্তক। অধ্যাপক ইউনূস গ্রামীণ ব্যাংকের প্রতিষ্ঠাতা। মুহাম্মদ ইউনূস এবং তার প্রতিষ্ঠিত গ্রামীণ ব্যাংক যৌথভাবে ২০০৬ সালে নোবেল শান্তি পুরস্কার লাভ করেন। তিনি প্রথম বাংলাদেশী হিসেবে এই পুরস্কার লাভ করেন। ইউনূস বিশ্ব খাদ্য পুরস্কার সহ আরও জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পুরস্কার ল
জবি সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্টের ৪র্থ সম্মেলন সম্পন্ন

জবি সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্টের ৪র্থ সম্মেলন সম্পন্ন

মোহাম্মদ মিনহাজুল ইসলাম ( সিএন নিউজ বিশেষ প্রতিনিধি) আজ সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্ট জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখার ৪র্থ সম্মেলন ৪ দফা দাবিতে সফলভাবে সম্পন্ন হয়েছে।এই সম্মেলনে কিশোর কুমার সরকারকে সভাপতি ও গোলাম রাব্বিকে সাধারণ সম্পাদক করে ১৭ সদস্যের কমিটি ঘোষণা করা হয়।সকাল ১১টায় সম্মেলনের উদ্বোধনী ঘোষণা করেন সংগঠনটির কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক স্নেহাদ্রী চক্রবর্তী রিন্টু। এরপর একটি বর্ণাঢ্য র্যালি ক্যাম্পাসের বিভিন্ন পথ প্রদক্ষিণ করে বিশ্ববিদ্যালয় ভাষ্কর্যের সামনে মিলিত হয় এরপর শুরু হয় আলোচনা সভা।সংগঠনটির বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি মেহরাব আযাদের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক কিশোরের কুমারের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের দর্শন বিভাগের শিক্ষক সিত্তুল মুনা হাসান,সংগঠনটির কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি সত্যজিৎ বিশ্বাস,অর্থ সম্পাদক প্রসেনজিৎ সরকার ও দপ্তর সম্পাদক
প্রবাসী’দের জীবন কোনো নাটক বা সিনেমা নয়।

প্রবাসী’দের জীবন কোনো নাটক বা সিনেমা নয়।

প্রবাসীদের নিয়ে সিএন নিউজ ২৪.কম'র বিশেষ আয়োজন, "প্রবাসীর কষ্ট" প্রথম পর্ব এক একটা প্রবাসীর কষ্টের কাহিনী শুনলে আপনার চোখের জল নয় মনের জলও গড়িয়ে পড়বে। আবেগে ভরা নাটক সিনেমা হার মেনে যাবে আমাদের গল্পের কাছে। কত কষ্ট করে এখানে টিকে থাকতে হয় কাজের সাথে নয় অচেনা মানুষের সাথে, কারণ এইখানে আপন বলতে কেউ নেই। সবাই নিজের কাজে ব্যস্ ত কে শুনে কার কথা। একজন প্রবাসীর কাজে যতটা কষ্ট হয়, তার থেকে অনেক বেশি কষ্ট হয় একা থাকতে। চলবে..........
এবার সৌদিতে সামনের সিটে বসা শিশুদের সিট বেল্ট না বাঁধলেও ক্যামেরাতে ধরবে।

এবার সৌদিতে সামনের সিটে বসা শিশুদের সিট বেল্ট না বাঁধলেও ক্যামেরাতে ধরবে।

সিএন নিউজ২৪.কম সৌদি আরব প্রতিনিধিঃ সিট বেল্ট না বেঁধে গাড়ি চালানো বদ অভ্যাস। গাড়ি চালানো অবস্থায় মোবাইলে কথা বলা আরেকটি বদ অভ্যাস। এই দুটি বদ অভ্যাস আপনাকে এবার ত্যাগ করতেই হবে। কারণ, প্রতিদিন ক্যামেরার জরিমানা গুণতে নিশ্চয় আপনার ভালো লাগবে না। বিভিন্ন স্থানে বসানো ক্যামেরা ড্রাইভার এবং সহযাত্রীর সিটবেল্ট না বাঁধাকে চিহ্নিত করছে, এবং জরিমানা আসছে সঙ্গে সঙ্গে। রিয়াদে যেসব স্থানে এরকম ক্যামেরা আছে তার তালিকা নিচে দেয়া হলো - তাখাশুসি স্ট্রিটে এরকম ক্যামেরা রয়েছে। এক্সিট 1 এক্সিট 3 এক্সিট 4 এক্সিট 5 এক্সিট 10 এক্সিট 13 এক্সিট 15 এক্সিট 24 এছাড়া বিমানবন্দর রাস্তা, নাঈফ বিশ্ববিদ্যালয়ের খুরাইস রোড । দাব্বাব আন্ডারপাস উমুল হামাম - আন্ডারপাস উরুবা আন্ডারপাস কায়রো স্কোয়ার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়- আন্ডারপাস কিং খালিদ বিশ্ববিদ্যালয়- আন্ডারপাস সামনের সিটে বসে ৭
বিএনপির নেত্রী সাবিরা নাজমুল যশোর বিমানবন্দরে গ্রেফতার !

বিএনপির নেত্রী সাবিরা নাজমুল যশোর বিমানবন্দরে গ্রেফতার !

অনলাইন ডেস্ক...সিএন নিউজ২৪.কমঃ যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য সাবিরা নাজমুল মুন্নিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টার দিকে যশোর বিমানবন্দর থেকে তাকে গ্রেফতার করে। ঢাকায় যাওয়ার জন্য সেসময় যশোর বিমানবন্দরে অপেক্ষা করছিলেন তিনি। যশোর কোতয়ালী থানার ওসি এ কে এম আজমল হুদা চেয়ারম্যান মুন্নিকে গ্রেফতারের কথা স্বীকার করেছেন। তিনি বলেন, ‘মুন্নির বিরুদ্ধে নাশকতার পাঁচটি মামলা রয়েছে। কোন মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখানে হয়েছে এমন এক প্রশ্নের জাবাবে ওসি বলেন, নাশকতার পাঁচটি মামলা তাকে আটক দেখানো হয়েছে। তবে বিএনপির দাবি, মুন্নি নাশকতার সব মামলায় জামিনে রয়েছে। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, সোমবার সকালে এক নেতা মৃত্যুর সংবাদ শুনে চেয়ারম্যান মুন্নি ঝিকরগাছা উপজেলা বোধখানা গ্রামে যান। সেখান থেকে ফিরে ১১টায় উপজেলা মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত উপজেলা মাসিক মিটি
৩ যুগ পর মাকে ফিরে পেল দুই ভাই!

৩ যুগ পর মাকে ফিরে পেল দুই ভাই!

অনলাইন ডেস্কঃ- পৃথিবীতে সন্তানের কাছে সবচেয়ে আপনজন মা। কিন্তু বিধাতার ইচ্ছেতে সেই মাকে ৩ যুগ আগেই হারিয়ে ফেলেন কলকাতার শ্রীধরপুরের বাসিন্দা শেখ মুস্তাফা ও শেখ মুরতাজা। ভারতীয় গণমাধ্যম সূত্রে জানা যায়, প্রায় ৩৫ বছর আগে সংসারের স্বচ্ছলতা ফেরাতে দিল্লিতে গিয়েছিলেন তাদের মা। কিন্তু পথ হারিয়ে দিল্লির বদলে তিনি চলে যান রাজস্থানের আজমীর শরীফে। অবশেষে কলকাতার মিশনারিজ অব চ্যারিটির উদ্যোগে নিজের দুই ছেলের কাছে ফিরলেন নিখোঁজ মাজেদা বিবি। ভারতীয় গণমাধ্যমের খবর, শ্রীধরপুর গ্রামের বাসিন্দা মাজেদার স্বামী শেখ ইয়াকুব পেশায় শ্রমিক ছিলেন। পাড়ার কয়েকজন বাসিন্দার সঙ্গে দিল্লিতে গিয়ে তিনি কাজ করতেন। দুই সন্তানকে নিয়ে বাড়িতেই থাকতেন মাজেদা। কিন্তু আর্থিক অনটনে একসময় তিনিও দিল্লি যাওয়ার পরিকল্পনা করেছিলেন। কিন্তু হাওড়া থেকে ভুল ট্রেনে উঠে তিনি রাজস্থানে পৌঁছান। ভাষাগত সমস্যা ও বিভিন্ন কারণে মাজেদ
সাবেক ছাত্রদল নেতা ওসি ইসমাঈল প্রত্যাহার

সাবেক ছাত্রদল নেতা ওসি ইসমাঈল প্রত্যাহার

সিএন নিউজ নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধিঃ- রূপগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. ইসমাঈল হোসেনকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। রোববার সন্ধ্যার পর তাকে রূপগঞ্জ থানা থেকে প্রত্যাহার করে নারায়ণগঞ্জ পুলিশ লাইনে নিয়ে আসা হয়েছে। তার স্থলে নতুন ওসি হিসেবে যোগদান করেছেন মনিরুজ্জামান। তিনি ময়মনসিংহ জেলা থেকে এসেছেন। তবে কি কারণে ইসমাইল হোসেনকে আকষ্মিক প্রত্যাহার করা হয়েছে তা জানা যায়নি। সম্প্রতি ওসি ইসমাইল হোসেনকে নিয়ে জাতীয় ও স্থানীয় গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হয়। ওই সংবাদে বলা হয় ছাত্রদলের নেতা পরিচয়ে ইসমাইল হোসেন পুলিশে যোগ দেন। সূত্র জানায়, ইসমাইল হোসেন ১৯৯৩ সালে পুলিশ বাহিনীতে এসআই পদে যোগ দেন। তখন চাকরির জন্য সুপারিশ করেছিলেন কাঞ্চন পৌর এলাকার বিএনপি নেতা ও তাঁর ভগ্নিপতি করমউদ্দিন। চাকরির জন্য সুপারিশপত্রে স্পষ্ট পরিচয় উল্লেখ ছিল ইসমাইল নরসিংদী সরকারি কলেজের শাখা ছাত্রদলের তৎকালীন সাংগঠনিক সম্পাদক। বিএ
আবার ও অভিযান শুরু সৌদি আরবে !

আবার ও অভিযান শুরু সৌদি আরবে !

নিজস্ব প্রতিনিধি সিএন নিউজ২৪.কমঃ সৌদিআরবে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে।এতে শুধু পুলিশ নয়! বরং সকল সরকারি প্রশাসনিক সোর্সের কর্মকর্তারা এই অভিযান পরিচালনা করছে। তারই ধারাবাহিকতা সৌদিআরবের রিয়াদস্থ আল আজিজিয়া নামক স্থানে,ও জেদ্দার কিং আব্দুল আজিজ ইউনিভার্সিটি রোডে,ব্যাপক পুলিশের অভিযানে কয়েকজন বাংলাদেশী ও পাকিস্তানি প্রবাসীকে আটক করা হয়েছে।এতে পরিচয় জানা না গেলেও সেলুন দোকান থেকে তাদেরকে ওয়ার্ক পারমিট (ইকামা) না থাকায় আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আমাদের সৌদি আরব প্রতিনিধি।
বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির দিনই ডায়েরিতে লিখেছিলাম, প্রধানমন্ত্রী পদক অর্জন করবো’

বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির দিনই ডায়েরিতে লিখেছিলাম, প্রধানমন্ত্রী পদক অর্জন করবো’

শরীফ উদ্দিন ভূঁইয়া- জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের ২০১১-১২ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী মোঃ ইয়াকুব কলা অনুষদে সর্বোচ্চ সিজিপিএ পেয়ে প্রধানমন্ত্রী পদক লাভ করেছেন। তিনি ১৯৯৪ সালে পটুয়াখালীর গলাচিপা থানায়। ২০০৯ সালে উত্তর পূর্ব গজালিয়া দাখিল মাদরাসা থেকে দাখিল এবং ২০১১ সালে ছরছীনা দারুস সুন্নাহ কামিল মাদরাসা আলিম পাশ করেন। ২০১১ সালে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগে ভর্তি হন। ২০১৬ সালে একই বিভাগ থেকে মাস্টার্স সম্পন্ন করেন। শিক্ষাক্ষেত্রে সর্বোচ্চ সম্মাননা পাওয়ার অনুভূতি জানতে সি এন নিউজ ২৪ পক্ষে মোঃ ইয়াকুবের সঙ্গে কথা বলেছেন শরিফ উদ্দিন ভুঁইয়া। সি এন নিউজ ২৪ : ‘প্রধানমন্ত্রী স্বর্ণপদক’ পেলেন। কেমন লাগছে? মুহাম্মদ ইয়াকুব : আল হামদুলিল্লাহ! খুব ভালো ভাগছে আমার। আল্লাহর দরবারে কৃতজ্ঞতা প্রকাশের ভাষা নেই। আল্লাহ আমাকে শিক্ষা ক্ষেত্রে দেশের সর্বোচ্চ
শিক্ষা ব্যবস্থায় এতো অব্যবস্থাপনা কেন?

শিক্ষা ব্যবস্থায় এতো অব্যবস্থাপনা কেন?

সিএন নিউজ শিক্ষাঙ্গন প্রতিবেদনঃ-- বলা হয়ে থাকে সকল সেক্টরের মূলে শিক্ষা সেক্টর। এই সেক্টরই দেশের জনগনকে মানবসম্পদে রূপান্তর করতে পারে। দিতে পারে দক্ষ জনশক্তির যোগান। আরো বলা হয়ে থাকে, শিক্ষা জাতির মেরুদণ্ড। যে জাতি যত বেশি শিক্ষিত, সে জাতি তত বেশি উন্নত। আর একটি উন্নত জাতির দ্বারা তাঁর ভাষা, সংস্কৃতি, ইতিহাস, ঐতিহ্য ইত্যাদিকে বিশ্ব দরবারে তুলে ধরা সম্ভব। তা যদি হয়, তবে পৃথিবীর বুকে সেই জাতিটি মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে পারবে। এখন কথা হচ্ছে উপরের কথাগুলো যদি সত্য হয়, আমরা যদি কথাগুলো মেনে নেই, তাহলে মনে প্রশ্ন জাগে স্বাধীনতার সাঁতচল্লিশ বছর পরেও এ দেশের শিক্ষা ব্যবস্থায় এতো অব্যবস্থাপনা কেন? দেখা যায়, স্কুল, কলেজ, মাদরাসাগুলোতে ছাত্র-ছাত্রী ও শিক্ষকদের অনুপাত খুবই অযৌক্তিক, হাস্যকর। শিক্ষার্থীর তুলনায় উপযুক্ত ক্লাসরুম, শিক্ষা উপকরণ খুবই অপ্রতুল, সীমিত। শিক্ষকদের বেতন কাঠামো ও সুযোগ সু
কর ফাঁকি : রবির সব ব্যাংক হিসাব জব্দ

কর ফাঁকি : রবির সব ব্যাংক হিসাব জব্দ

সিএন নিউজ অর্থনীতি ডেস্কঃ-- কর ফাঁকির অভিযোগে মোবাইল ফোন অপারেটর রবির সব ব্যাংক হিসাব তিন দিনের জন্য জব্দ (ফ্রিজ) রাখতে দেশের সব বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোকে চিঠি দিয়েছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। সোমবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) এনবিআরের বৃহৎ করদাতা ইউনিট (এলটিইউ) থেকে সব ব্যাংকের প্রধান নির্বাহীকে ওই চিঠি পাঠানো হয়েছে। এ প্রসঙ্গে এলটিইউ-এর কর কমিশনার মতিউর রহমান বলেন, ‘প্রায় ১৯ কোটি টাকা ভ্যাট ও সম্পূরক শুল্ক ফাঁকির অভিযোগ রয়েছে মোবাইল ফোন অপারেটর রবির বিরুদ্ধে।’ তিনি বলেন, ‘অন্য অপারেটররা নির্ধারিত সময়ে ভ্যাট দিলেও রবি দেয়নি। এ কারণে প্রথম পদক্ষেপ হিসেবে তাদের সব ব্যাংক হিসাব তিন দিনের জন্য ফ্রিজ রাখতে চিঠি দেওয়া হয়েছে।’ এনবিআরের চিঠিতে বলা হয়েছে, ২০১৭ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত কোম্পানির সর্বশেষ আর্থিক বিবরণী ও সিম বিক্রির কাগজপত্র পর্যালোচনা করে দেখা যায়, রবি অপরিশোধিত সম্পূরক শুল্ক, স্থান
কুমিল্লা সেনানিবাস নারী সৈনিকের রহস্যময় মৃত্যু !

কুমিল্লা সেনানিবাস নারী সৈনিকের রহস্যময় মৃত্যু !

বিশেষ প্রতিনিধি সিএন নিউজ২৪.কমঃ কুমিল্লা সেনানিবাসে এক নারী সৈনিকের রহস্যময় মৃত্যু হয়েছে। নারী সৈনিকের নাম হালিমা আক্তার (২০)। সোমবার কুমিল্লা সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালের চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন। পুলিশের দাবি প্রাথমিক ভাবে এটি আত্মহত্যা বলে মনে হচ্ছে। বিষয়টি সন্ধ্যায় নিশ্চিত করেন কুমিল্লা কোতয়ালী মডেল থানার ওসি আবু ছালা মিয়া। নিহত হালিমা আক্তার নরসিংদী জেলা পলাশ উপজেলার, বালুরচর গ্রামের আবুল কালামের মেয়ে। তিনি অবিবাহিত। হালিমা কুমিল্লা সেনানিবাসের ভিতর ১২৭ ফিল্ড ওয়ার্কশপের ব্যারাকের ফ্যানের সাথে ওড়না পেঁচিয়ে, আত্মহত্যা করেছেন বলে সেনাবাহিনীর সিনিয়র ওয়ারেন্ট অফিসার নিজামুল আহসান লিখিতভাবে সেনানিবাস পুলিশ ফাঁড়িকে জানিয়েছেন। সেনানিবাস পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ শেখ মাহমুদুল হাসান রুবেল জানান, নিহতের গলায় ওড়নার দাগ রয়েছে। মৃত্যুর কারণ ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন পাওয়ার পর জান যাবে। কুমি
প্রবাসী সাহাবুদ্দিন বাচ্ছুর দাফন সম্পন্ন !

প্রবাসী সাহাবুদ্দিন বাচ্ছুর দাফন সম্পন্ন !

নিজস্ব প্রতিনিধি- সাহাবুদ্দিন বাচ্ছু গত ১৩ ফেব্রুয়ারি রোজ মঙ্গল বার বাংলাদেশ বাহারাইন স্থানীয় সময় রাত ৮:৩০ মিনিটের সময় হঠাৎ হৃদক্রিয়া বন্ধ হয়ে চাকুরীরত কোম্পানির বাসায় ইন্তেকাল করেন ইন্নালিল্লাহি.......রাজিউন। দীর্ঘ ১৩ দিন বাহারাইনস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের মাধ্যমে তার কফিন বিমান যোগে আজ ২৬/০২/২০১৮ বাংলাদেশ সময় তার গ্রামের বাড়ী পৌঁছে, আজ সন্ধ্যা ৬:৩০ মিনিট জানাজা সম্পন্ন হয়। উল্লেখ্য সাহাবুদ্দিন বাচ্ছু কুমিল্লা জেলা নাঙ্গলকোট থানা বেলঘর গ্রামের মৃত আব্দুল মন্নানের বড় ছেলে,মাষ্টার আবদুল জলিলের ভাতিজা এবং সাবেক ছাত্রনেতা আব্দুল কুদ্দুসের চাচাতো ভাই। সে চার সন্তানের জনক।সে পেশায় একজন দক্ষ ইলেকট্রিকাল টেকনিশিয়ান ছিলেন।