শুক্রবার, আগস্ট ১৭

ধর্ম ও জীবন

কুরবানীর ইতিহাস, তাৎপর্য ও শিক্ষা

কুরবানীর ইতিহাস, তাৎপর্য ও শিক্ষা

সিএন নিউজ ধর্ম ও জীবন ডেস্কঃ-  অারবী 'কুরবান' শব্দটি ফারসী বা উর্দুতে "কুরবানী" রুপে পরিচিত হয়েছে। যার অর্থ "নৈকট্য"। অার "কুরবান" শব্দটি 'কুরবাতুন' শব্দ থেকে উৎপন্ন। অারবী "কুরবাতুন" এবং "কুরবান" উভয় শব্দের শাব্দিক অর্থ নিকটবর্তী হওয়া,কারো নৈকট্য লাভ করা প্রভৃতি। ইসলামী পরিভাষায় "কুরবানী" ঐ মাধ্যমকে বলা হয় যার দ্বারা অাল্লাহ রাব্বুল অালামীনের নৈকট্য অর্জন ও তাঁর ইবাদাতের জন্য পশু যবেহ করা হয়। কুরবানীর ইতিহাস খুবই প্রাচীন। সেই অাদি পিতা অাদম (অা:) এর যুগ থেকেই কুরবানীর বিধান চলে অাসছে। অাদম (অা:) এর দুই ছেলে হাবীল ও কাবীলের কুরবানী পেশ করার কথা অামরা মহাগ্রন্থ অাল-কোরঅান থেকে জানতে পারি। অাল্লাহ তায়ালা বলেন, "অাদমের দু'পুত্রের (হাবীল ও কাবীলের) বৃত্তান্ত তুমি তাদেরকে জানিয়ে দাও,যখন তারা উভয়ে কুরবানী করে ছিলো,তখন একজনের কুরবানী কবুল হলো অার অন্যজনের কুরবানী কবুল হলোনা।তাদের
কোরআন-হাদিসের মনগড়া ব্যাখ্যা, মাওলানা সাদকে বর্জনের আহ্বান

কোরআন-হাদিসের মনগড়া ব্যাখ্যা, মাওলানা সাদকে বর্জনের আহ্বান

সিএন নিউজ অনলাইন ডেস্কঃ-- মাওলানা সাদ কান্ধলভী কোরআন হাদিসের মনগড়া ব্যাখ্যা দিচ্ছেন। তিনি তাবলীগ ছাড়া ইসলামের অন্যান্য কার্যক্রমকে হেয়প্রতিপন্ন করেছেন। কাজেই তাকে সম্পূর্ণভাবে বর্জন করতে হবে। শনিবার রাজধানীর মোহাম্মদপুরে মাওলানা সাদ বিরোধী ওয়াজাহাতি জোড় বা পরামর্শ সভায় অংশ নেয়া নেতৃবৃন্দ এ মন্তব্য করেন। মাওলানা সাদের ক্ষুদ্র চিন্তার কারণে তাবলীগ জামাতের মূল দৃষ্টিভঙ্গি ধুলোর সঙ্গে মিশে যেতে বসেছে বলে এতে জানানো হয়েছে। সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন হেফাজত ইসলাম বাংলাদেশের আমির শাহ আহমদ শফী (রহ.)। সভায় নেতৃবৃন্দ বলেন, মাওলানা সাদের কারণে তাবলীগের মধ্যে বিভেদ দেখা দিয়েছে। তার কর্মকাণ্ডে যাতে সাধারণ মানুষ বিভ্রান্ত না হন, সে জন্য শনিবারের পরামর্শ সভায় বেশ কিছু সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এতে চলতি বছরের টঙ্গী ইজতেমায় সরকারের সঙ্গে পরামর্শ করে আগামী বছরের জন্য প্রথম পর্ব ১৮ থেকে ২০ জান
জেনে নিন হজ্জ কি এবং কেন? হজ্জের বিস্তারিত নিয়ম কানুন সমুহ

জেনে নিন হজ্জ কি এবং কেন? হজ্জের বিস্তারিত নিয়ম কানুন সমুহ

সিএন নিউজ ধর্ম ও জীবন ডেস্কঃ-- হজ্জ শব্দের অর্থ সঙ্কল্প করা, কোনো পবিত্র স্থান দর্শনের সঙ্কল্প করা। ইসলামী শরীয়তের ভাষায় আল্লাহর সন্তুষ্টির উদ্দেশ্যে ইহরাম বেঁধে কয়েকটি নির্দিষ্ট দিনে ও নির্দিষ্ট স্থানসমূহ [কাবা, আরাফা, মুজদালিফা, মিনা] অবস্থান এবং কয়েকটি স্থানে আল্লাহ্ ও রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম নির্দেশিত কয়েকটি অনুষ্ঠান [খানায়ে কাবা তাওয়াফ, সাঈ করা, মিনা, আরাফায় অবস্থান, মুজদালিফায় রাত যাপন, মিনায় রমি করা, কোরবানি করা, বিদায়ী তাওয়াফ করা] পালন করাকে হজ্জ বলে। হজ্জ তিন প্রকার। ইফরাদ: মিকাত থেকে শুধু হজের উদ্দেশ্যে ইহরাম বাঁধাকে হজ্জে ইফরাদ বলে। যে এই নিয়ত করেন তাকে বলা হয় মুফরিদ। কিরান: মিকাত থেকে হজ্জ ও উমরাহর উদ্দেশ্যে ইহরাম বেঁধে একই ইহরামে উমরাহ এবং হজ্জ করাকে হজ্জে কিরান বলে। যে এই নিয়ত করেন তাকে কারেন বলে। হজ্জে তামাত্তু: মিকাত থেকে উমরাহ-এর ইহরাম বাঁ
চাঁদপুরের ৪২ গ্রামে ঈদুল ফিতর আজ

চাঁদপুরের ৪২ গ্রামে ঈদুল ফিতর আজ

বিশেষ প্রতিনিধি- আজ শুক্রবার চাঁদপুরের ৪ উপজেলার প্রায় ৪২টি গ্রামে একযোগে পালিত হচ্ছে ঈদুল ফিতর। বাংলাদেশের অন্যান্য অঞ্চলের ন্যায় প্রতিবছর এসব গ্রামের মুসলমানগণ আত্মীয়-স্বজন নিয়ে ঈদ পালন করে থাকেন। চাঁদপুর জেলার হাজীগঞ্জ, শাহরাস্তি, মতলব উত্তর ও ফরিদগঞ্জ উপজেলার আংশিক ও পূর্ণাঙ্গ কয়েকটি গ্রাম মিলে প্রায় ৪২ গ্রামের মুসলমানগন ঈদ পালন করছেন। উল্লেখযোগ্য গ্রামগুলো হচ্ছে হাজীগঞ্জ উপজেলার সাদ্রা, প্রতাপপুর, বলাখালের কিছু অংশ, ব্রাহ্মণিছোঁয়া, রামচন্দ্রপুরের কিছু অংশ, ওলিপুর ও উটতলী গ্রামের কিছু অংশ। ফরিদগঞ্জ উপজেলা মধ্যে রয়েছে সাচনমেঘ, বাসারা, সুরঙ্গচাউল, উভারামপুর, কাইতাড়া, ভূলাচো, মুন্সিরহাট, বদপুর, বাছপাড়, ঘড়িহানার কিছু অংশ। প্রতি বছর এসব গ্রামের মুসলমানগন সৌদী আরবের সাথে মিল রেখে রোজা ও ঈদ পালন করে থাকেন। ১৯২৮ সালে হাজিগঞ্জ উপজেলার সাদ্রা দরবারের মরহুম পীর মাওলানা ইসহাক (রহঃ) প্রথম বা
পবিত্র লাইলাতুল কদর আজ

পবিত্র লাইলাতুল কদর আজ

মোঃ সাইফুল্লাহ আজ মঙ্গলবার দিবাগত রাত পবিত্র লাইলাতুল কদরের রজনী। ‘হাজার মাসের চেয়েও উত্তম’ পবিত্র লাইলাতুল কদর সমগ্র মানবজাতির জন্য অত্যন্ত বরকত ও পুণ্যময় রজনী। পবিত্র ধর্মীয় গ্রন্থ আল কোরআন লাইলাতুল কদরে নাযিল হয়। আজ ২৬ রমজান। দিনের শেষে আসন্ন রাতটি ২৭ রমজানের রাত হিসেবে চিহ্নিত। হাদিস শরীফের বর্ণনা অনুযায়ী আজকের রাতটি পবিত্র লাইলাতুল কদর হওয়ার সম্ভাবনা অধিক। মাসব্যাপী সিয়াম সাধনা শেষে অধিক সম্ভাবনার ভিত্তিতে আজ রাতে সারা দুনিয়ার ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা পবিত্র লাইলাতুল কদর অন্বেষণ করে থাকেন। মাহে রমজানের বিশেষ ফজিলত ও গুরুত্ব অনেকাংশে মহিমান্বিত এ রাতের কারণেই বৃদ্ধি পেয়েছে। পবিত্র রমজানের এ রাতে লাওহে মাহফুজ থেকে নিম্ন আকাশে মহাগ্রন্থ আল কোরআন অবতীর্ণ হয়। আল্লাহ্ সুবহানাহু তা’য়ালা সুরা ক্বদরে বলেন, ‘নিশ্চয় এ কোরআন আমি লাইলাতুল কদরে নাজিল করেছি।’ অন্য আয়াতে বলেন, ‘রমজান মাস, এ মাসেই কো
রমজান মাসে জান্নাতের দরজাগুলো খুলে দেওয়া হবে!

রমজান মাসে জান্নাতের দরজাগুলো খুলে দেওয়া হবে!

সিএন নিউজ ধর্ম ও জীবন ডেস্কঃ-  রমজান মাসে জান্নাতের দরজাগুলো খুলে দেওয়া হবে, দোজখের দরজাগুলো বন্ধ করে দেওয়া হবে, আর বিতাড়িত শয়তানকে করা হবে শিকলবন্দি। রামাদান— তাকওয়া অর্জনের মাস। আত্মশুদ্ধির মাস। এ মাসেই আত্মাকে দিতে হবে প্রশিক্ষণ। যত ব্যথা, যত বেদনা আছে অন্তরে, আছে যত ঘৃণ্য কালো দাগ, সব পুড়িয়ে ছারখার করে দেয় বলে এ মাসের নাম ‘রামাদান’। রামাদানের প্রস্তুতি তো শেষ। ঘরদোর গুছিয়ে, ফ্রাইফুডে ফ্রিজ ভর্তি করে একদম তৈরি। কিন্তু শুধু রোজা রাখা আর কুরআন পড়াটাকে তাকওয়া অর্জন বলে কি? আত্মশুদ্ধি ও তাকওয়া অর্জনের জন্য আমলের সাথে সাথে গুরুত্বপূর্ণ আরেকটা শর্ত তো আছে। আর তা হচ্ছে— গোনাহ বর্জন। গোনাহ পরিত্যাগ করা ছাড়া পিওর অন্তরের অধিকারী হওয়া অসম্ভব! তাই এ মাসেই আত্মাকে প্রশিক্ষণ দিতে হবে। সুস্থ করে তুলতে হবে অসুস্থ অন্তর। যেভাবে কিছু গোনাহ অভ্যাসে পরিণত হয়ে গেছে, সেভাবে গোনাহ না করাটাকে
তারাবিহ নামাজের নিয়ত ও দোয়া

তারাবিহ নামাজের নিয়ত ও দোয়া

সিএন নিউজ ধর্ম ও জীবন ডেস্কঃ-  দুই রাকাত করে ১০ তাশাহহুদ তথা ১০ সালামের মাধ্যমে ২০ রাকাআ’ত তারাবিহ আদায় করতে হয়। এই নামাজই হল তারাবিহ। তবে নিয়ম হচ্ছে আরামের সহিত বিশ্রাম করে করে ধীরে ধীরে তারাবিহ পড়া। কিন্তু আমাদের দেশে মানুষ শারীরিকভাবে দুর্বল, দিনের কর্মব্যস্ততা ও ক্লান্তির জন্য এক নাগাড়ে তারাবিহ পড়ে থাকে। তারাবিহ নামাজের নিয়ত : উচ্চারণ : নাওয়াইতু আন উসালি­য়া লিল­াহি তাআ’লা, রাকাআ’তাই সালাতিত তারাবিহ সুন্নাতু রাসুলিল্লাহি তাআ’লা * মুতাওয়াযজ্জিহান ইলা যিহাতিল কা’বাতিশ শারিফাতি, আল্লাহু আকবার। *(যদি জামাআ’তের সহিত নামাজ হয় তবে- ইক্বতাদাইতু বি হাজাল ইমাম বলতে হবে)। অর্থ : আমি ক্বিলামুখী হয়ে দুই রাকাআ’ত তারাবিহ সুন্নাত নামাজ আল­াহর জন্য আদায়ের নিয়্যত করছি, আল­াহু আকবার। (যদি জামাআ’তের সহিত নামাজ হয় তবে- এই ইমামের ইমামতিতে জামাআ’তের সহিত)। তারাবিহ নামাজের চার রাকাআ’ত পরপর দোয়
পবিত্র শবে বরাত আজ

পবিত্র শবে বরাত আজ

সিএন নিউজ ধর্ম ও জীবন ডেস্কঃ-- আজ পবিত্র শবে বরাত। মহিমান্বিত রজনী। বাংলাদেশসহ সারা বিশ্বের ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা ইবাদত-বন্দেগির মধ্য দিয়ে এই রাত অতিবাহিত করবেন। মহিমান্বিত এ রজনীতে মুসলিম উম্মাহর সুখ, শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করে বিশ্বের মুসলমানরা বিশেষ মোনাজাত ও দোয়া করবেন। সৌভাগ্যের এ রজনীতে রাজধানীসহ সারা দেশে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মুসলমানরা নামাজ ছাড়াও নফল রোজা রাখেন। বাসাবাড়ি ছাড়াও মসজিদে মসজিদে সারা রাত চলে ইবাদত-বন্দেগি। মুসলমানদের বিশ্বাস, মহিমান্বিত এই রাতে মহান আল্লাহতায়ালা মানুষের ভাগ্য অর্থাৎ তার নতুন বছরের ‘রিজিক’ নির্ধারণ করে থাকেন। এই রাতে বাবা-মা, আত্মীয়-স্বজনসহ প্রিয়জনদের কবর জিয়ারত করা হয়। মহিমান্বিত এ রজনী ভাবগম্ভীর পরিবেশের মধ্য দিয়ে পালনের লক্ষ্যে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে মঙ্গলবার রাতে বিভিন্ন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। অনুষ্ঠা
পবিত্র শবে বরাত ১ মে

পবিত্র শবে বরাত ১ মে

অনলাইন ডেস্কঃ- আগামী ১ মে মঙ্গলবার দিবাগত রাতে পবিত্র শবে বরাত। গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ঢাকা বায়তুল মোকাররমস্থ ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। গতকাল সূর্যাস্তের পর শাবানের চাঁদ দেখা যাওয়ায় পবিত্র শাবান মাস আজ ১৮ এপ্রিল বুধবার থেকে গণনা শুরু হবে। সে হিসেবে ১৪ শাবান (১ মে) দিবাগত রাতে পালিত হবে পবিত্র শবে বরাত। ইসলামিক ফাউন্ডেশন সূত্রে এটি নিশ্চিত হওয়া গেছে। ফারসি 'শব' শব্দের অর্থ রাত এবং 'বরাত' শব্দের অর্থ সৌভাগ্য। আরবিতে বলে 'লাইলাতুল বরাত' অর্থাৎ সৌভাগ্যের রজনী। হিজরি সনের শাবান মাসের ১৪ তারিখ দিবাগত রাতটি মুসলিম উম্মাহ পালন করে সৌভাগ্যের রজনী তথা ভাগ্যরজনী হিসেবে। এটি কোরআন, সুন্নাহ, ইজমা ও কিয়াস সম্মত মহাপবিত্রতম একটি রাত। এই মর্যাদাপূর্ণ রাতে মহান আল্লাহতায়ালা বান্দাদের জন্যে তাঁর অশেষ রহমতের দরজা খুলে দেন। মহিমান্বিত এই
অহংকার সব পাপের জননী

অহংকার সব পাপের জননী

ইসলাম ডেস্ক: অহংকার হচ্ছে সকল পাপের মূল। একে আরবিতে বলা হয় ‘ উম্মুল আমরায’ সকল রোগের জননী। আর অন্য দিকে তাকালে দেখা যায় জগতের প্রথম পাপই হচ্ছে অহংকার। সৃষ্টি জগতের প্রথম মানব আমাদের আদি পিতা হজরত আদম আলাইহিস সালামকে সৃষ্টি করার পর আল্লাহ তায়ালা ফেরেস্তাদের আদেশ করেছিলেন, তোমরা আদমকে সিজদা কর। আদম (আ:) কে সৃষ্টি করার পূর্বে আল্লাহ তায়ালা যখন, ফেরেস্তাদের তাঁর মানব-সৃষ্টির ইচ্ছার কথা জানিয়েছিলেন তখন তারা বলেছিল আপনি আমাদেরকে রেখে এমন কোনো জাতি সৃষ্টি করবেন না, যারা নৈরাজ্য ঘটাবে, একে অন্যের রক্ত ঝড়াবে, অথচ আমরা তো আপনার সার্বক্ষণিক ইবাদতে মগ্ন। মনে মনে তারা এও ভেবেছিল-আল্লাহ তায়ালা কিছুতেই এমন কাউকে সৃষ্টি করবেন না যে, আমাদের চেয়ে বেশি জানে এবং তার নিকট আমাদের তুলনায় অধিক সম্মানিত হবে। এসবের পরও ফেরেস্তাদেরকে আল্লাহ তায়ালা বললেন, তোমরা আদমকে সিজদা কর, তখন ফেরেস্তারা সকলেই সিজদায় লুটিয়ে
বিশ্বনবী হযরত মোহাম্মদ (সঃ)এর “ঐতিহাসিক ভ্রমণ”

বিশ্বনবী হযরত মোহাম্মদ (সঃ)এর “ঐতিহাসিক ভ্রমণ”

ইসলামের ইতিহাস,সিএন নিউজ২৪.কমঃ ১. পবিত্র সেই সত্তা, যিনি তাঁর বান্দাকে রজনীতে ভ্রমণ করিয়েছেন মসজিদুল হারাম থেকে মসজিদুল আকসা পর্যন্ত, যার আশপাশ আমি বরকতময় করেছি, যাতে আমি তাকে আমার (কুদরতের) কিছু নিদর্শন দেখিয়ে দিতে পারি। নিশ্চয়ই তিনি (আল্লাহ) সর্বশ্রোতা, সর্বদ্রষ্টা। [সুরা : বনি ইসরাঈল, আয়াত : ১ (তৃতীয় পর্ব)] তাফসির : এ আয়াতে পবিত্র ইসরা ও মিরাজের ঘটনার দিকে ইঙ্গিত করা হয়েছে। ইসরা অর্থ রাত্রিকালীন ভ্রমণ। ইসরা হলো পৃথিবী থেকে পৃথিবীর অন্যত্র ভ্রমণ। আর পৃথিবী থেকে ঊর্ধ্বলোকে ভ্রমণকে মিরাজ বলা হয়। মিরাজ অর্থ সিঁড়ি। ইসলামের পরিভাষায় বায়তুল মুকাদ্দাস থেকে যে অলৌকিক সিঁড়ির মাধ্যমে রাসুলুল্লাহ (সা.)-কে সপ্ত আসমানের ওপরে মহান আল্লাহর সান্নিধ্যে নিয়ে যাওয়া হয়, সেই সিঁড়িকে মিরাজ বলা হয়। সাধারণত হিজরতের আগে একটি বিশেষ রাতের শেষ প্রহরে বায়তুল্লাহ শরিফ থেকে বায়তুল মুকাদ্দাস পর্যন্ত মহানবী (
৩ শ্রেণির মানুষের উপর অত্যাচার করলে আল্লাহর আরশ পর্যন্ত কেঁপে ওঠে

৩ শ্রেণির মানুষের উপর অত্যাচার করলে আল্লাহর আরশ পর্যন্ত কেঁপে ওঠে

সিএন নিউজ ধর্ম ও জীবন ডেস্কঃ-- ইসলাম সকল শ্রেণীর মানুষের অধিকারের বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ দিকনির্দেশনা প্রদান করেছে। সমাজের যারা প্রতিবন্ধীদের অবহেলা ও অবজ্ঞার চোখে দেখে, তাদের মনে রাখা দরকার, বিভিন্ন দুর্ঘটনা ও অসুস্থতার কারণে একজন সুস্থ-সবল মানুষও যে কোনো সময় শারীরিক সক্ষমতা হারিয়ে প্রতিবন্ধী হয়ে যেতে পারে। তাই প্রত্যেক সুস্থ মানুষের উচিত, শারীরিক সুস্থতার জন্য আল্লাহর কৃতজ্ঞতার পাশাপাশি প্রতিবন্ধীদের প্রতি সহমর্মিতার হাত বাড়ানো। কারণ তাদেরও অধিকার রয়েছে স্বাভাবিক জীবনযাপনের। ইসলাম প্রতিবন্ধীদের প্রতি সচেতন হওয়ার নির্দেশ দিয়েছে। এ প্রসঙ্গে পবিত্র কোরআনে কারিমে ইরশাদ হয়েছে, ‘তাদের (বিত্তশালী) ধনসম্পদে অভাবগ্রস্ত ও বঞ্চিতদের অধিকার রয়েছে। –সূরা জারিয়াত : আয়াত ১৯, প্রতিবন্ধী, পাগল, অবলা বা নারীদের শরীরে আঘাত করলে আল্লাহর আরশ কেঁপে ওঠে। রাসূলুল্লাহ (সা.) সমাজের সব শ্রেণীর মানুষকে সমান
আগামী ১৪ এপ্রিল পবিত্র লাইলাতুল মিরাজ

আগামী ১৪ এপ্রিল পবিত্র লাইলাতুল মিরাজ

সিএন নিউজ ডেস্কঃ-- আগামী ১৪ এপ্রিল শনিবার দিবাগত রাতে সারাদেশে পবিত্র লাইলাতুল মিরাজ পালিত হবে। গতকাল রোববার সন্ধ্যায় ইসলামিক ফাউন্ডেশনের বায়তুল মুকাররম সভাকক্ষে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। ধর্ম মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম-সচিব এ বি এম আমিন উল্লাহ্ নূরী এতে সভাপতিত্ব করেন। সভায় জানানো হয়, বাংলাদেশের আকাশে আজ ১৪৩৯ হিজরি সনের পবিত্র রজব মাসের চাঁদ দেখা যায়নি। ফলে আগামীকাল সোমবার পবিত্র জমাদিউস সানি মাস ৩০ দিন পূর্ণ হবে এবং আগামী মঙ্গলবার থেকে পবিত্র রজব মাস গণনা শুরু হবে। এই পরিপ্রেক্ষিতেই আগামী ১৪ এপ্রিল শনিবার দিবাগত রাতে সারাদেশে পবিত্র লাইলাতুল মিরাজ পালিত হবে। সভায় তথ্য মন্ত্রনালয়ের যুগ্ম-সচিব মো. মিজান-উল-আলম, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের যুগ্ম সচিব মো. সাইদুর রহমান, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সচিব কাজী নুরুল ইসলাম, উপপ্রধান তথ্য কর্মকর্তা মু. সাইফুল্লাহ, বাংলাদেশ মহাকাশ গবে
দ্বীনি শিক্ষা অর্জন করা সবার জন্য ফরজ

দ্বীনি শিক্ষা অর্জন করা সবার জন্য ফরজ

তথ্য সংগ্রহে- আল্ আমিন শাহেদঃ মানুষ জ্ঞানী বা শিক্ষিত হয়ে জন্ম নেয় না। আল্লাহ শিক্ষার পথ উন্মুক্ত করে দেন বলেই মানুষ শিখতে পারে। যদি ইলম না থাকত তবে আল্লাহ, নবী-রাসূল সা:, বেহেশত, দোজখ, হালাল, হারাম, পাপ, পুণ্য কোনো কিছুই মানুষ জানতে পারত না। বিশ্ব চরাচরে যে অসংখ্য সৃষ্টি এসবের কোনো ধারণাই মানুষ পেত না। পবিত্র কুরআন ও হাদিসের মাধ্যমে আল্লাহ আমাদের সব কিছু সম্পর্কে জ্ঞান দান করেছেন। পৃথিবী, গ্রহ, নক্ষত্র মহাবিশ্ব সব কিছুর প্রতি তথ্য ও ইঙ্গিত ঐশী গ্রন্থে দেয়া হয়েছে। ইলম বা জ্ঞান অর্জন ছাড়া এসবের খবর জানা সম্ভব নয়। এ জন্য ইলম তথা শিক্ষা অর্জন করা মানুষের জন্য অপরিহার্য। রাসূলুল্লাহ সা: বলেন, প্রত্যেক নরনারীর জন্য ইলম বা জ্ঞান অর্জন করা ফরজ অবশ্য কর্তব্য। (বুখারি)। ইসলামে পুরুষের মতো নারীর জন্যও শিক্ষা লাভ ফরজ করা হয়েছে। যেখানে পুরুষের শিক্ষার প্রসঙ্গ এসেছে, সেখানে নারীদের শি
রাসুলের সুন্নতই সর্বোত্তম স্টাইল

রাসুলের সুন্নতই সর্বোত্তম স্টাইল

শরীফ উদ্দিন ভূঁইয়া- প্রত্যেকটি টিভি চ্যানেল,প্রত্যেকটি কার্পোরেট মিডিয়া মুসলিম তরুন-তরুনীদের নায়ক,গায়ক বানানোর কাজে ব্যস্ত। যুবক-যুবতিদের বেহায়াপনার কাজে লিপ্ত। আজকে মুসলিম তরুন,তরুনীদের চেহারার দিকে তাকালে বুঝা যায়না তারা কি মুসলমানের সন্তান না কি কাফেরের সন্তান।তারা কি ইসলামের অনুসারী না কি হলিউড,বলিউডের অনুসারী।তারা কি রাসুলের উম্মত না কি আব্রাহাম লিংকনের উম্মত।আজকে মুসলিম সন্তানেরা তাদের হেয়ার স্টাইল থেকে শুরু করে পায়ের জুতা পর্যন্ত সর্ব ক্ষেত্রে কাফেরদের অনুসরন করছে। হলিউড,বলিউড কুলাঙ্গারদেরকে তাদের আদর্শ হিসেবে গ্রহন করেছে। হেমুসলমানের সন্তানেরা তোমরা কি তোমাদের রাসুল(সাঃ) কে ভালোবাসোনা,? তোমরা কি তোমাদের নবী রাসুল সাঃ এর আদর্শকে ভালোবাসোনা???? আল্লাহ তায়ালা পবিত্র কোরআনে বলেন"""তোমাদের জন্য রাসুলের জীবনেই রয়েছে উত্তম আদর্শ।রাসুল সাঃ এর আদর্শ ছাড়া উত্তম আদর্শ আর কারো
যৌবনের ব্যাপারে নসিহা।

যৌবনের ব্যাপারে নসিহা।

শরীফ উদ্দিন ভূঁইয়া- আলহামদুলিল্লাহি ওয়াহদাহু ওয়াস সলাতু ওয়াস সালামু আ’লা মাল্লা নাবিয়্যা বা’দাহ । আম্মা বা’দ– হে যুবক-যুবতী! যে চেহারাখানা বার বার আয়নায় দেখো, আর মনে মনে উৎফুল্ল হও, “বাহ! কত সুন্দর! কত সুন্দরই না আমি!” একবারও কি ভেবে দেখেছ তোমার সুন্দর এই চেহারার সৃষ্টিকর্তার কথা?! কোন মহান রূপকার তোমাকে দিয়েছেন এমন রূপ-লাবণ্য! মুখে কোন দাগ পড়লে আয়নায় দেখে দেখে আফসোস কর, “আহ! যদি এই দাগটা না থাকত, তবে আমাকে এমন সুন্দর দেখাত!” অথচ, সেই মহান কারিগরের কথা একটি বারও চিন্তা করার প্রয়োজনবোধ করোনি যিনি তোমাকে কাদামাটি থেকে সৃষ্টি করে এমন রূপ দিয়েছেন! কত মহান রূপকার তিনি! সুবহানাল্লাহ! আজ নিজের চেহারা নিয়ে তুমি এমন অহংকার করছ যেন কখনো তোমার মৃত্যুই হবে না! তোমার রূপ-যৌবন চিরকাল তোমাকে আনন্দে রাখবে! হায় আফসোস! আচ্ছা, ধরে নিলাম তোমার মৃত্যু হবে না। তবে দুনিয়ার সাধারণ নিয়মানুযায়ী তুমি অবশ
ইসলামের কথা] মহানবী ( সাঃ ) এর কয়েকটি মূল্যবান বাণী

ইসলামের কথা] মহানবী ( সাঃ ) এর কয়েকটি মূল্যবান বাণী

আল্ আমিন শাহেদঃ- হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম সর্বশেষ নবী। দুনিয়াতে তাঁর দেখানো পথই সঠিক।তার নির্দেশিত পথে চললেই জাহান্নাম থেকে মুক্তি পাবে। আমরা মুসলমানরা তাঁর উম্মত বা অনুসারী দল। আমরা তাঁর দেখানো পথে চলি। সঠিক পথ পাবার জন্যে তিনি আমাদের কাছে দুটি জিনিস রেখে গেছেন। একটি হলো আল্লাহর কুরআন। আর অপরটি হলো তাঁর সুন্নত বা সুন্নাহ। নবীর সুন্নাহ সম্পর্কে জানা যায় হাদীস থেকে। হাদীসের অনেকগুলো বড় বড় গ্রন্থ আছে। নবীর বাণীকে হাদীস বলে। নবীর কাজ কর্ম এবং চরিত্রের বর্ণনাকে ও হাদীস বলে। নবীর সমর্থন এবং আদেশ নিষেধের বর্ণনাকেও হাদীস বলে। ইসলামের সত্য ও সঠিক পথকে জানাবার জন্যে আমাদেরকে আল্লাহর বাণী কুরআন মজীদকে বুঝতে হবে এবং মানতে হবে। ঠিক তেমনি আমাদেরকে মহানবী হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর বাণী হাদীস পড়তে হবে এবং সে অনুযায়ী চ
এবার কনকনে ঠান্ডা বাতাসে কাবু ইজতেমার মুসল্লি

এবার কনকনে ঠান্ডা বাতাসে কাবু ইজতেমার মুসল্লি

সিএন নিউজ ডেস্কঃ-- শীতের চাদরে ঢাকা পড়েছে সারা দেশ। তীব্র শীতের সঙ্গে যোগ হয়ে কনকনে ঠান্ডা বাতাস। এই বাতাস শীতের তীব্রতা আরও বাড়িয়ে দিয়েছে। হাড়ে কাঁপুনি ধরিয়ে দিয়েছে। তীব্র শীতের এই সময়ে রাজধানী ঢাকার তুরাগ তীরে আয়োজন করা হয়েছে বিশ্ব ইজতেমা। সেখানে জড়ো হয়েছেন সকল বয়সী মানুষ। আজ রবিবার (১৪ জানুয়ারি) ইজতেমার প্রথম পর্বের আখেরি মোনাজাত। মোনাজাতের আগের দিন প্রথম পর্বের ইজতেমায় যে চিত্র ছিল গতবারে, এবারে তাতে ভাটা পড়েছে। মুসল্লির সমাগম কম। রাস্তায় যানজট নেই। অথচ অন্যান্য বছরগুলোতে এমন চিত্র চোখে পড়েনি। ইজতেমা শুরুর পর থেকেই টঙ্গী, উত্তরা, আশুলিয়ার সড়কগুলোয় ব্যস্ততা বেড়ে যায়। বিশেষ করে আখেরি মোনাজাতের আগের দিন দুপুর থেকেই ইজতেমা ময়দানের আশপাশে তিলধরার ঠাঁই থাকে না। ময়দান ও আশপাশের এলাকা জনসমুদ্রে রূপ নেয়। এবারে সে রূপ চোখে পড়ছে না। ময়দানে মুসল্লির সমাগম থাকলেও রাস্তা অ
হযরত শাহজালাল (র:) এর বাস্তবে ঘটে যাওয়া কিছু অলৌকিক ঘটনা

হযরত শাহজালাল (র:) এর বাস্তবে ঘটে যাওয়া কিছু অলৌকিক ঘটনা

নবী-রাসূল কিংবা অলী-আউলিয়াগণ প্রয়োজনের প্রেক্ষিতে মাঝে মাঝে এমন কিছু ঘটনার অবতারণা করেছেন, স্বাভাবিক দৃষ্টিকোণ থেকে যেসব ঘটনা একদমই অলৌকিক। নবী-রাসূলগণ যখন এ ধরনের ঘটনার অবতারণা করেন, তখন তাকে বলে মুজিযা। একইরকম ঘটনার অবতারণা যখন কোনো অলী-আউলিয়া করেন, তখন তাকে বলে কারামত। সিলেটের হযরত শাহজালাল (র:) সম্পর্কেও বেশ কিছু অলৌকিক ঘটনা প্রচলিত আছে। সেসব ঘটনা মানুষের মুখে মুখে ফেরে। এগুলোর মাঝে কিছু কিছু গ্রন্থিত হয়ে বই আকারে প্রকাশও হয়েছে। লোকমুখে প্রচলিত ঘটনাগুলো মানুষভেদে অল্পস্বল্প এদিক সেদিক হয়ে যায়। সেজন্য লোকমুখে প্রচলিত কারামতগুলোকে পাশ কাটিয়ে বইয়ে গ্রন্থিত কিছু ঘটনার আলোকপাত করা হবে এ লেখায়। অনেকগুলো ঘটনার মাঝে কয়েকটি উল্লেখ করা হলো, ধীরে ধীরে বাকিগুলোও উল্লেখ করা হবে। বিষ যেভাবে শরবত হয়ে গেলো… হযরত শাহজালাল (র:)-এর জন্মস্থান ইয়েমেন। জন্মস্থান ছেড়ে ভারতবর্ষ অঞ্চলে ইসলাম প্রচার
আজ আমবয়ানের মধ্য দিয়ে বিশ্ব ইজতেমার ১ম পর্ব শুরু

আজ আমবয়ানের মধ্য দিয়ে বিশ্ব ইজতেমার ১ম পর্ব শুরু

আল্ আমিন শাহেদঃ- টঙ্গীর তুরাগ তীরে বাদ ফজর আমবয়ানের মধ্যেদিয়ে শুরু হয়েছে ৫৩তম বিশ্ব ইজতেমা। জর্ডানের তাবলিগ জামাতের মুরব্বি ওমর হোতিবের আমবয়ানের মধ্যদিয়ে শুরু হয়েছে এবারের ইজতেমার কার্যক্রম। মাওলানা আবদুল মতিন তার বয়ান অনুবাদ করে দিচ্ছেন। বৃহস্পতিবার প্রস্তুতিমুলক বয়ান শুরু হলেও শুক্রবার বাদ ফজর থেকে শুরু হয়েছে বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব। দেশ-বিদেশের লাখো মুসল্লি ইজতেমা ময়দানে সমবেত হয়েছেন। বাংলাদেশের মাওলানা মোশারফ হোসেন এবার বয়ান করেন। বাদ মাগরিব শুরু হবে মূল বয়ান। দুই দফায় অনুষ্ঠিত হচ্ছে বিশ্ব ইজতেমা। প্রথম দফা ১২ জানুয়ারি থেকে ১৪ জানুয়ারি এবং দ্বিতীয় দফা ১৯ জানুয়ারি থেকে ২১ জানুয়ারি চলবে। দুই দফারই শেষদিন হবে তাবলিগ জামাতের প্রধান আকর্ষণ আখেরি মোনাজাত। তবে আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করবেন তা এখনও নির্ধারিত হয়নি। গত কয়েক বছর ধরে ভারতের মাওলানা সাদ বিশ্ব ইজতেমায় বয়ান ছাড়াও আখেরি মোনা
জেরুজালেমের দীর্ঘ  ইতিহাস, যা পড়লে চমকে উঠবেন

জেরুজালেমের দীর্ঘ ইতিহাস, যা পড়লে চমকে উঠবেন

সিএন নিউজ নিজস্ব প্রতিনিধিঃ এমডি শাহিন মজুমদারঃ-- জেরুজালেম এর ইতিহাস অনেকেই জানেন না । মসজিদুল_আকসা বা বায়তুল_মোকাদ্দাস মুসলমানদের প্রথম কিবলা । ইসলামের তৃতীয় পবিত্রতম মসজিদ বলা হয় এটিকে । হিজরতের পর বারবার রাসুল (সঃ) এর মনোবাসনা হয়, যদি কাবাঘরের দিকে কিবলা করে নামাজ পড়তে পারতেন । তখন একদিন রাসুল (সঃ) (মতান্তরে) কোন সাহাবির ঘরে নামাজ পড়ছিলেন । আল্লাহ নির্দেশ করেন কাবাঘরের দিকে মুখ ফিরিয়ে নিতে । রাসুল (সঃ) কাবাঘরের দিকে মুখ ফিরান । সেই খবর দ্রুত এক সাহাবি কিবলাতাইনে নামাজরত সাহাবিদের কাছে পৌঁছে দিলে, নামাজরত অবস্থাতেই তাঁরা কিবলা পরিবর্তন করেন । তখন থেকেই কাবাঘর মুসলমানদের কিবলায় পরিণত হয় । আল্লাহ তাঁর হাবীব এর মনোবাসনা এভাবেই পূর্ণ করেন । "জেরুসালেমের দীর্ঘ ইতিহাসে, শহরটি কমপক্ষে দুইবার ধ্বংস হয়েছে, ২৩ বার অবরোধ হয়েছে, ৫২বার আক্রমণ হয়েছে এবং ৪৪বার দখল এবং পুনর্দখল হয়েছে
নবীজির বর্ণনার সঙ্গে মিলে যাচ্ছে সৌদি সংকট!

নবীজির বর্ণনার সঙ্গে মিলে যাচ্ছে সৌদি সংকট!

  ইস্রাফিল হোসেন সুমন- রাসূল সা. বর্ণিত একটি হাদীসের সংকটময় অবস্থার সাথে মিলে যাচ্ছে না তো এই সংকট? সৌদিতে দুর্নীতি বিরোধী অভিযানে ১১জন রাজপুত্র, চারজন মন্ত্রী এবং প্রায় ডজন খানেক প্রাক্তন মন্ত্রীকে বন্দি করার পর সৌদি আরবসহ মুসলিমবিশ্বজুড়ে তৈরি হয়েছে তীব্র আলোড়ন। এর পর আরও কিছু ঘটনার মধ্য দিয়ে তীব্র আকার ধারণ করে সৌদি সঙ্কট।রাজ পরিবার বিভক্ত হওয়ার মতোও খবর পাওয়া গেছে। হযরত ছওবান (রা.) থেকে বর্ণিত, আল্লাহর রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, ‘তোমাদের ধনভাণ্ডারের (রাজত্বের জন্য) নিকট তিনজন বাদশাহর সন্তান যুদ্ধ করতে থাকবে। কিন্তু ধনভাণ্ডার (রাজত্ব) তাদের একজনেরও হস্তগত হবে না। তারপর পূর্ব দিক (খোরাসান) থেকে কতগুলো কালো পতাকাবাকী দল আত্মপ্রকাশ করবে। তারা তোমাদের সাথে এমন ঘোরতর লড়াই করবে, যেমনটি কোন সম্প্রদায় তাদের সঙ্গে লড়েনি।’ বর্ণনাকারী বলেন, ‘তারপর নবীজি সাল
সাগরবুকে ইসলামের জয়গান গাইছে মরক্কোর দ্বিতীয় হাসান মসজিদ

সাগরবুকে ইসলামের জয়গান গাইছে মরক্কোর দ্বিতীয় হাসান মসজিদ

এম. এম. এইচ. রায়হানঃ-  সৃষ্টি শৈলীর কারুকাজে অনিন্দ্য সুন্দর স্থাপনা উত্তর আফ্রিকার দেশ মরক্কোর সমুদ্র তীরবর্তী শহর কাসাব্লাঙ্কার বাদশাহ দ্বিতীয় হাসান মসজিদ। মরক্কোর সবচেয়ে বড় এবং বিশ্বের ১৩তম বৃহত্তম মসজিদ এটি। দেখতে যেন আটলালিন্টক মহাসাগরের বুকে চিরে গড়ে ওঠা এক সুন্দর স্থাপনা। রাতে বেলা জ্বলে ওঠা এক উজ্জ্বল আলোকবর্তিকা। সমুদ্র তীরবর্তী মরক্কোর কাসাব্লাঙ্কা শহরে এ মসজিদটিকে দূরের কোনো জাহাজ থেকে দেখলে মনে হবে সাগরের ঢেউয়ের তালে তালে দুলছে মসজিদটি। আর এ ঢেউয়ের মধ্যেই যেন নামাজ পড়ছে মানুষ। ২২ একর জায়গার ওপর নির্মিত মসজিদটির এক তৃতীয়াংশই সাগরের কুল ঘেঁষে পানির ওপর নির্মিত। হয়, ঢেউয়ের বুকে যেন মসজিদটি দুলছে। আর মুসল্লিরা নামাজ পড়ছেন সেই পানির ওপর। নির্মাণশৈলীতেও অনন্য এ মসজিদটির তিনভাগের একভাগই সাগরের ওপর অবস্থিত। বাদশাহ দ্বিতীয় হাসান তার শাসনামলে ফরাসি স্থপতি
রাগান্বিত মায়ের দুআ আমাকে হারাম শরীফের ঈমাম বানিয়েছে

রাগান্বিত মায়ের দুআ আমাকে হারাম শরীফের ঈমাম বানিয়েছে

লন্ডনের এক কনফারেন্সে কা’বার এক ঈমাম শাইখ আল কালবানি এই গল্পটি বলেছিলেন- ছোটবেলায় তিনি খুব দুস্ট ছিলেন। তিনি দুষ্টামি করে তার মাকে রাগাতেন। কিন্তু তার মা (রহিঃ) খুব দ্বীনদার মহিলা ছিলেন আর তিনি জানতেন আল্লাহর কাছে দুআর কি শক্তি। তিনি দুআ করাটা তার অভ্যাসে পরিণত করেছিলেন, আর যখনি তিনি তার ছেলের উপর রেগে যেতেন তখনি তিনি বলতেন, “আল্লাহ যেন তোমাকে পথ দেখান ! আর তিনি যেন তোমাকে ক্বাবা’র ঈমাম বানান” ! ঈমাম আল কালবানি বলেছেন, “আল্লাহ তার দুআ কবুল করেছেন এবং আমি ক্বাবা’র ঈমাম হয়ে গেছি” আল্লাহু আকবার ! শাইখ আদিল কালবানি হলেন কালো, তিনি পারস্য উপসাগরীয় একজন দরিদ্র সন্তান। নিউইয়র্ক টাইমস এর একটা ইন্টারভিউ এ শাইখ কালবানি বলেছেন, “মসজিদুল হারামের নামাজের ঈমামতি করা অসাধারণ সম্মানের, আর এই কাজ শুধুমাত্র আরব ভুখন্ডের আরবদের জন্যই নির্ধারিত” তিনি সেই সময়ে ফিরে গেলেন, যখন তিনি জানতে পারলেন
” মানুষ হত্যা মহাপাপ”

” মানুষ হত্যা মহাপাপ”

বিশেষ প্রতিনিধি সিএন নিউজ২৪.কম ইসলাম শান্তির ধর্ম, নিরাপত্তার ধর্ম। ইসলাম হত্যা ও আত্মহত্যাকে হারাম ঘোষণা করে মানুষকে জীবনের নিরাপত্তা দিয়েছে। দুঃখজনক হলেও সত্য, বর্তমানে মানুষের জীবনের নিরাপত্তা হুমকির সম্মুখীন। প্রতিটি মানুষই আজ নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। সমাজে প্রায়ই হত্যাকাণ্ড ঘটছে তুচ্ছ কারণে, অনেক ক্ষেত্রে অকারণে। আবার অনেকে বিপথগামী হয়ে মানুষ খুন করছে। ★ এভাবে জাতীয় দৈনিকগুলোতে প্রায় প্রতিদিন ছাপা হচ্ছে নানারকম হত্যা-খুনের রোমহর্ষক সংবাদ। অপরদিকে একটি কুচক্রী মহল বিভিন্ন স্থানে জঙ্গি হামলা করে নিরপরাধ মানুষ হত্যা করে তার দায়ভার ইসলাম ও ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের ওপর চাপাচ্ছে। তাই এ কুচক্রী মহলের চক্রান্ত থেকে দেশ ও জাতিকে রক্ষা করতে হলে আমাদের সচেতন হতে হবে। ★ ইসলামকে সঠিকভাবে জানতে হবে এবং ইসলামের সঠিক শিক্ষা জনসাধারণের কাছে পৌঁছাতে হবে। এ জঘন্য মহাপাপ থেকে সবাই যাতে দূরে থাক
নাঙ্গলকোটের আইটপাড়া আজিজিয়া ইসলামিয়া ক্বাওমী মাদ্রাসার ৭৬তম বার্ষিক মাহফিল অনুষ্ঠিত

নাঙ্গলকোটের আইটপাড়া আজিজিয়া ইসলামিয়া ক্বাওমী মাদ্রাসার ৭৬তম বার্ষিক মাহফিল অনুষ্ঠিত

 মোঃ আল আমিনঃ- সহ সম্পাদক, সিএন নিউজ২৪.কম কুমিল্লা নাঙ্গলকোট উপজেলার দৌলখাঁড় ইউনিয়নে অবস্থিত আইটপাড়া আজিজিয়া ইসলামিয়া ক্বাওমী মাদ্রাসার ৭৬তম বার্ষিক মাহফিল অনুষ্ঠিত। উক্ত ইসলামী আলোচনা সভায় সভাপতি ছিলেন হযরত মাওঃ লোকমান হোসাইন সাহেব। প্রধান আলোচক আলহাজ্ব হযরতুল আল্লামা নজির আহমদ সাহেব - ঢাকা। বিশেষ মেহমান হিসেবে ওয়াজ করেন হযরতুল আল্লামা ড.আ.ফ.ম খালেদ হোসাইন -চট্রগ্রাম। আরও ওয়াজ করেন আল্লামা মুফ্তি মুশতাকুন্নবী সাহেব-কুমিল্লা ও হযরত মাওঃ আবুল কাশেম সাহেব। উক্ত মাহফিলে আরো অনেক উলামায়ে কেরাম আলোচনা পেশ করেন। মাহফিলে বক্তারা ইসলামের পথে চলা কত সহজ, কিভাবে নামাজ আদায় করতে হবে সর্বপরি দ্বীন পথে চলার আহবান করেন এবং সকলের শান্তি কামনা করে দোয়া করেন। দোয়ায় হাজার হাজার মানুষ চোখের পানি ফেলে আমিন আমিন ধ্বনিতে আল্লাহর কাছে পানা চান। উক্ত মাহফিলে মিডিয়া পার্টনার জনপ্রিয় অ
দীর্ঘদিনের নামাজের ‘ কাজা ’ যেভাবে আদায় করবেন

দীর্ঘদিনের নামাজের ‘ কাজা ’ যেভাবে আদায় করবেন

সিএন নিউজ২৪ ধর্ম ও জীবন ডেস্কঃ-  নামাজ আল্লাহ তাআলা কর্তৃক ফরজ ইবাদত। প্রিয়নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, ‘ইসলাম এবং কুফরির মধ্যে পার্থক্যকারী হচ্ছে নামাজ।’ তাইতো তিনি আরও বলেছেন, ‘ইচ্ছাকৃতভাবে নামাজ ছেড়ে দেয়া কুফরি।’ প্রিয়নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে জিজ্ঞাসা করা হলো, ‘উত্তম আমল কোনটি?’ এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেছেন, ‘প্রথম ওয়াক্তে নামাজ আদায় করা। অর্থাৎ নামাজের সময় হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে প্রথম ওয়াক্তে নামাজ আদায় করাই হলো সর্বোত্তম আমল। নামাজের যথা সময়ে আদায়ের ব্যাপারে প্রিয়নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম কর্তৃক এত সতর্কতা ও ফজিলত বর্ণনার পরও বিভিন্ন কারণে মানুষের নামাজ ছুটে যায়। কারণবশত যথা সময়ে নামাজ পড়তে না পারলে ওই নামাজ অন্য নামাজের ওয়াক্ত শেষ হওয়ার আগে আদায় করাকে ‘কাজা’ বলে। নামাজের ‘কাজা’ আদায়ের সুবিধার্থে ফউত হওয়া নামাজকে দুই ভাগে ভাগ করা হয়েছে
আখেরি চাহার সোম্বা সম্পর্কে জানে না জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটি

আখেরি চাহার সোম্বা সম্পর্কে জানে না জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটি

সিএন নিউজ২৪ ডেস্কঃ-  সফর মাসের চাঁদ দেখতে সভায় বসলেও এ মাসের শেষ বুধবার যে আখেরি চাহার সোম্বা সেই তথ্য জানে না জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটি। তাই চাঁদ দেখার সংবাদ পর্যালোচনার পর কমিটির সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেওয়া বিজ্ঞপ্তিতে মহানবী হযরত মুহম্মদ (স.)এর সুস্থতা লাভের সফর মাসের শেষ বুধবারের তাৎপর্যময় দিনটির বিষয়ে কোনো তথ্য নেই। কোন তারিখে আখেরি চাহার সোম্বা পালিত হবে তা জানানো হয়নি বিজ্ঞপ্তিতে। অথচ সফর মাসের চাঁদ দেখা কমিটির সভার মূল বিষয়ই এটি।খবর জাগো নিউজের। সফর মাসের চাঁদ দেখার বিষয়ে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সহকারী জনসংযোগ কর্মকর্তা শায়লা শারমীন স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, বাংলাদেশের আকাশে শুক্রবার ১৪৩৯ হিজরি সনের পবিত্র সফর মাসের চাঁদ দেখা যায়নি। ফলে শনিবার পবিত্র মুহাররম মাসের ৩০ দিন পূর্ণ হবে এবং আগামী রোববার থেকে পবিত্র সফর মাস গণনা শুরু হবে। শুক্রবার মাগরিবের নামাজের পর রাজধ
যাকাত আদায়ে শীর্ষস্থান অর্জন করেছে কুমিল্লা

যাকাত আদায়ে শীর্ষস্থান অর্জন করেছে কুমিল্লা

রিজওয়ান মজুমদার গিলবাটঃ- সারাদেশের মধ্যে যাকাত আদায়ের ক্ষেত্রে শীর্ষস্থান অর্জন করেছে কুমিল্লা। ইসলামিক ফাউন্ডেশন কুমিল্লা কার্যালয় আয়োজিত সরকারি যাকাতের অর্থ ও ইমাম মুয়াজ্জিন কল্যাণ ট্রাস্টের সদস্যদের মাঝে ঋণ বিতরণ ও সরকারি হজ্ব ব্যবস্থাপনা বিষয়ক আলোচনা সভায় ইসলামিক ফাউন্ডেশন কুমিল্লা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মো. আবুল কাশেম মজুমদার এ তথ্য জানান। গত (১২ অক্টোবর) জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। এ বছর কুমিল্লা জেলা থেকে ২৩ লাখ ১০ হাজার ৮শ’ টাকা যাকাত বাবত আদায় করা হয়। সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন কুমিল্লা জেলা প্রশাসক মো. জাহাঙ্গীর আলম। তিনি বলেন, বিনা সুদে সরকার অনুমোদিত অনুদান ও ঋণের টাকা যথাযথভাবে বিনিয়োগ করতে হবে। ধর্মের নামে প্রতারণা করে মানুষ ঠকানো যাবে না। হজ্ব যাত্রীদের প্রি-রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। যাকাত আদায় প্রসঙ্গে তিনি বলেন, যাকাত ব্যবস্থা সঠিকভা
বিশ্ব ইজতেমা শুরু ১২ জানুয়ারি ২০১৮

বিশ্ব ইজতেমা শুরু ১২ জানুয়ারি ২০১৮

আল্ আমিন শাহেদঃ- আগামী বছরের তাবলিগ জামাতের বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব শুরু হবে ১২ জানুয়ারি। শেষ হবে ১৪ জানুয়ারি। চার দিন বিরতি দিয়ে দ্বিতীয় পর্ব শুরু হবে ১৯ জানুয়ারি, শেষ হবে ২১ জানুয়ারি। সোমবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আইনশৃঙ্খলা বিষয়ক এক সভা শেষে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল সাংবাদিকদের একথা জানিয়েছেন। সভায় পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজি) এ কে এম শহীদুল হক, র‍্যাবের মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ, ডিএমপি কমিশনার আসাদুজ্জামান মিয়া উপস্থিত ছিলেন। বিশ্ব ইজতেমায় নিরাপত্তার কোনো ঘাটতি থাকবে না জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, নিরাপত্তার জন্য যা যা ব্যবস্থা করা প্রয়োজন তা আমরা করেছি। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, যেসব দেশে বাংলাদেশের দূতাবাস নেই সেসব দেশের নাগরিকরা বাংলাদেশে ৩০ দিনের অন অ্যারাইভাল ভিসা পাবে।