রবিবার, এপ্রিল ২২

লাইফস্টাইল

সুস্থ থাকতে বিয়ে করুন

সুস্থ থাকতে বিয়ে করুন

বিয়ে শুধু একটি সামাজিক বন্ধনই না। সুস্থ থাকতেও বিয়ের রয়েছে প্রয়োজনীয়তা। সম্প্রতি স্বাস্থ্যবিষয়ক একটি ওয়েবসাইটের প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়েছে এমন তথ্য। বিয়ে এবং সুস্থ্য এই দুই নিয়ে ওয়েবসাইটটি কী বলছে তা জেনে নিন। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা: বিয়ের ফলে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে নিয়মিত শারীরিক সম্পর্ক স্থাপিত হয়। যার ফলে দম্পতির শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে। নারীর মূত্রাশয় নিয়ন্ত্রণ: স্বাভাবিক যৌনজীবন নারীর মূত্রাশয়ের মাংসপেশীকে সক্রিয় রাখে। বিশেষ করে ‘অর্গাজমের’ সময় ‘পেলভিক ফ্লোরের’ মাংসপেশী সংকুচিত হয়, যা একটি ভালো ব্যায়ামও বটে। কারণ প্রায় ৩০ শতাংশ নারীর কোনো না কোনো সময় মূত্রাশয়ের ওপর নিয়ন্ত্রণ রাখা কঠিন হয়ে পড়ে। রক্তচাপ কমায়: নিয়মিত শারীরিক সম্পর্ক স্থাপিত হলে রক্তচাপ কমে বলে মনে করেন গবেষক জোসেফ জে. পিনসন। গবেষণা বলছে, শারীরিক সম্পর্ক রক্তচাপ কমায়। ব্যায়াম: নিয়মিত শারীরিক সম্প
সকালে লেবু পানি পান করুন আর জাদু দেখুন!

সকালে লেবু পানি পান করুন আর জাদু দেখুন!

লাইফস্টাইল ডেস্কঃ লেবুতে ভিটামিন সি এবং খনিজ ভরপুর। যা আমাদের হৃদযন্ত্রের ধড়ফড়ানি কমানো থেকে ফুসফুসকে ঠিকভাবে কাজ করতে সাহায্য করে। সকালে লেবুপানি পান করা আরও ভালো। নিয়মিত সকালে এক কাপ লেবু পানি পান করলে আপনাদের দেহ পাবে জাদুকরী উপকারিতা। ১. পাকা লেবুতে থাকে ইলেকট্রোলাইটস (যেমন পটাশিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম ইত্যাদি)। সকাল সকাল লেবু পানি আপনাকে হাইড্রেট করে, শরীরে যোগান দেয় এইসব প্রয়োজনীয় উপাদানের যা দেহের পানিশূন্যতা দূর করে। ২. লেবুপানি দেহের ত্বকের জন্য খুবই ভালো। লেবুর ভিটামিন সি উপাদান দেহের ত্বক ও টিস্যুর জন্য খুব জরুরি। তাই ত্বকের যে কোনো সমস্যা রোধ করতে প্রতিদিন লেবুপানি পান করুন। আপনার ত্বককে করে তোলে সুন্দর ও পরিষ্কার। ৩. বুক জ্বলা পড়া দূর করে। যাদের এই সমস্যা আছে রোজ আধা কাপ পানির মাঝে ১ চা চামচ লেবুর রস মিশিয়ে পান করুন। ৪. অন্য যে কোনো খাবারের চেয়ে লেবু পানির ব্যবহারে
তরমুজের বীজ ফেলে দিচ্ছেন ? জানেন কত গুণ

তরমুজের বীজ ফেলে দিচ্ছেন ? জানেন কত গুণ

  লাইফস্টাইল ডেস্ক-গরমের ট্রেডমার্ক ফল তরমুজ। গ্রীষ্মের শুরু থেকেই বাজার ছেয়ে যায় তরমুজে। আর গরমে শরীরে জলের ভারসাম্য বজায় রাখতে যে তরমুজের জুড়ি মেলা ভার তাও আমাদের সবার জানা। কিন্তু তরমুজ খাওয়ার সময় বীজ ফেলে দেওয়াই দস্তুর। কিন্তু জানেন কি, তরমুজের বীজের কত গুণ? মারণ ব্যাধি থেকে আপনাকে বাঁচাতে পারে তরমুজে বীজ। গবেষকরা বলছেন, তরমুজের বীজে এমন এক রাসায়নিক থাকে যা ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে অত্যন্ত কার্যকরী। তাছাড়া তরমুজের বীজে থাকা একাধিক খনিজ গর্ভবতী মহিলাদের বিশেষ উপকারী। তরমুজের বীজে থাকা লাইসিন নামে উত্সেচক ডায়াবেটিস বা মধুমেহ নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে। ডায়াবেটিসে চমকে দেওয়ার মতো ফল দিতে পারে তরমুজের এই বীজ। এছাড়া তরমুজের বীজে ক্যালোরির মাত্রা অত্যন্ত কম। এছাড়া তার মধ্যে রয়েছে ম্যাগনেশিয়াম, লোহা ও ফোলেট, যা গর্ভবতী মহিলাদের জন্য অত্যন্ত উপকারী। তবে এ সবই থাকে তরমুজের
লুকিয়ে পর্ন দেখার দিন শেষ!

লুকিয়ে পর্ন দেখার দিন শেষ!

  অনলাইন ডেস্কঃ- যারা নীল ছবি দেখতে চায়, তাদের ওয়েবসাইটের কোনও অভাব নেই৷ আর এই সব ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে গেলে লাগে না কোনও ব্যক্তিগত ডেটা৷ কিন্তু এবার সেই দিন ফুরালো৷ লুকিয়ে পর্ন দেখার দিন এবার শেষ৷ এবার থেকে পর্নসাইটে প্রবেশ করতে হলে লাগবে ব্যক্তিগত তথ্য৷ ব্রিটেন সরকার সম্প্রতি এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে৷ সেদেশের একটি সংবাদমাধ্যমে এই খবর প্রকাশ পেয়েছে৷ সেখানে প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী, ব্রিটেনের ৬৬ শতাংশ অ্যাডাল্ট অনলাইনে পর্নোগ্রাফি দেখে৷ একটি সমীক্ষায় এই তথ্য উঠে এসেছে৷ রিপোর্টে এও বলা হয়েছে, পর্নের উপর কঠোর ব্যবস্থা জারি করতে চলেছে ব্রিটেন৷ অ্যাডাল্ট ম্যাটেরিয়াল ব্রিটেনে বন্ধ হয়ে যাবে৷ তবে এর মানে এই নয় ব্রিটেনে পর্নোগ্রাফি দেখা বন্ধ হয়ে যাবে৷ এবার থেকে বয়স ভেরিফিকেশন করে তবে পর্নোগ্রাফি দেখার অনুমোদন মিলবে৷ যে বা যারা এবার থেকে পর্ন দেখতে চাইবে তাদের পাসপোর্ট নম্বর
পাঁচ মিনিটেই ঘুমিয়ে পড়ার ৫টি উপায়

পাঁচ মিনিটেই ঘুমিয়ে পড়ার ৫টি উপায়

সিএন নিউজ লাইফস্টাইল ডেস্কঃ-  সারাদিন পরিশ্রম করে বিছানায় গা এলিয়ে দিয়েও ঘুমের দেখা পান না অনেকে। এপাশ ওপাশ করে সময় কেটে যাচ্ছে কিন্তু ঘুম নেই চোখে। এজন্য আগেভাগেই শুয়ে পড়েছেন। টিভি/মোবাইল বন্ধ করেছেন, ঘরের আলো বন্ধ করে শুয়ে আছেন। কিন্তু ঘুম নেই। কিছুক্ষণ পর ঘুমের ওপর বিরক্ত হয়ে মেজাজটাই আর ধরে রাখতে পারছেন না অনেকে। জেনে নেই কৌশল, কিভাবে পাঁচ মিনিটের মধ্যে ঘুমিয়ে যাবেন। লিখেছেন-তালহা বিন জসিম। কালকের সব পরিকল্পনা লিখে ফেলুন: ধরুন, কাল আপনার অনেকগুলো কাজ করতে হবে এজন্য আপনার খুব সকালে উঠতে হবে। আর ঘুমের সময় এটাই মাথায় ঘুরছে কিভাবে কাজগুলো করবেন, সকালে উঠতে পারবেন কিনা এটা নিয়েও চিন্তিত। পুরো দিনের কাজের তালিকা আপনার মাথায় ঘুরতে থাকে আর দুশ্চিন্তা বাড়তে থাকে। আসলে এ রকম অবস্থায় আপনার মস্তিষ্ক উত্তেজিত হয়ে থাকে তাই ঘুম আসে না। এজন্য কাল কি কি কাজ করতে হবে তা লিখে ফেলুন। এবং অগ্র
পুরুষরা যে বয়সে নারীদের কাছে ‘বুড়ো’ !

পুরুষরা যে বয়সে নারীদের কাছে ‘বুড়ো’ !

অনলাইন ডেস্কঃ লাইফস্টাইল ,সিএন নিউজ২৪.কম, কথায় আছে- নারীদের বয়স আর পুরুষের বেতন কত জানতে নেই! আর এই জন্যে নারীদের বলে ‘কুড়িতেই বুড়ি’! কিন্তু নারীদের পাশাপাশি পুরুষেরও বয়সের একটা আকর্ষণ আছে। মেয়েদের কাছে ঠিক কত বয়স হলে একজন পুরুষ ‘বুড়ো’ হয় সেটা নিয়েই ২০০০ জনের ওপর একটি সমীক্ষা করেছে এয়ারবিএনবি নামে একটি ওয়েবসাইট। সমীক্ষায় দেখা গেছে, ২৭ বছর বয়সে পুরুষরা মনের দিক দিয়ে সব থেকে সপ্রতিভ থাকে। কোনও বাধা বিঘ্নই তখন তাদের আটকাতে পারে না। হঠাৎ করেই এরা বেরিয়ে পড়তে পারে ট্র্যাকিঙয়ের উদ্দেশে। বা, থমথমে গুরুগম্ভীর পরিবেশে গল্প শুনিয়ে সবাইকে হাসিয়ে দিতে পারে। কিন্তু, বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে এই মানুষগুলোই কেমন যেন নিষ্প্রভ হয়ে যায়। জীবনের দায়-দায়িত্ব কাঁধে চড়ার সঙ্গেই তারা যেন একঘেয়ে হয়ে যায়। কয়েক বছর আগের স্বতঃস্ফূর্ত ভাব হারিয়ে যায়। সমীক্ষা অনুযায়ী পুরুষরা সব থেকে বোরিং হয়ে যায় ৩৯ বছর বয়স
শরীরে তিল থাকলে যা হয়

শরীরে তিল থাকলে যা হয়

সিএন নিউজ লাইফস্টাইল ডেস্কঃ--  প্রত্যেকের শরীরে কোথাও না কোথাও তিল রয়েছে। এর কারণ হিসেবে বিজ্ঞান বলছে- ত্বকের এক জায়গায় একসঙ্গে অনেক কোষের জন্ম হলে তিল হয়। তবে যুগ যুগ ধরে জ্যোতিষ শাস্ত্র বলছে অন্য কথা। শরীরের তিলের সঙ্গে নাকি জড়িয়ে আছে ভাগ্যের ভালো-মন্দ। আসুন জেনে নেই কী বলছেন জ্যোতিষীগণ- কপাল কপালের মাঝখানে তিল থাকলে বুদ্ধির বিকাশ হয়। ডানদিকে থাকলে তিনি ভালো সঙ্গী হন। বামদিকে থাকলে তিনি খুবই ভাগ্যবান। থুতনি থুতনিতে তিল থাকলে তারা খুবই কেয়ারিং, আবেগপ্রবণ ও ভ্রমণপিপাসু। ডানদিকে থাকলে হয় যুক্তিবাদী। বামদিকে থাকলে স্পষ্টভাষি। গাল গালে তিল থাকলে বুদ্ধিমান, মেধাবি, অ্যাথলেট হতে পারেন। তবে এরা বেশ রগচটাও হয়ে থাকেন। নাক নাকে তিল থাকলে পরিশ্রমী ও ভালো বন্ধু হন। তবে আত্মসম্মানবোধ প্রবল। ডানদিকে থাকলে যৌন চাহিদা বেশি, বামদিকে থাকলে সবকিছু কষ্ট করেই পেতে হবে। ঠোঁট তার
ছেলেদেরকে বোকা বানায় যেভাবে মেয়েরা

ছেলেদেরকে বোকা বানায় যেভাবে মেয়েরা

ছেলে বোকা না মেয়ে বোকা এ নিয়ে বিতর্কের শেষ নাই। তবে ছেলেদের তুলনায় মেয়েরা বোকা হলেও মেয়েরা ছেলেদের অগোচরে ছেলেদের নিয়ে যে খেলা খেলে থাকে তাতে মেয়েরা নন ছেলেরাই মেয়েদের চেয়ে বেশি বোকা। তবে মেয়েরা খারাপ দৃষ্টিভঙ্গি প্রভাব নিয়ে খেলেন না। মেয়েদের এই খেলাকে বলা চলে ‘মাইন্ড গেম’। অন্যভাবে বলা চলে বেশিরভাগ মেয়ে ছেলেদের একটু বাজিয়ে দেখার জন্য এ ধরনের খেলা খেলে থাকে। এর কারণ হিসাবে বলা যায় – পছন্দের পুরুষকে নিজের নিয়ন্ত্রণে রাখা, বাড়তি মনযোগ পাওয়া, চাপ প্রয়োগ করে বিয়ে বা কমিটমেনটে রাজি করানো, নিজের অধিকার ফলানোসহ নানান রকম অদ্ভুত কারণ আছে এর নেপথ্যে। দেখে মনে হবে ভাজা মাছটি উল্টে খেতে জানে না: আগেই বলেছি ছেলেরা ভাবে মেয়েরা খুব বোকা। কিন্তু অনেক ক্ষেত্রে বাস্তবে তার উল্টোটি হয়। মেয়েরা অনেক সময় প্রেমিক পুরুষের কাছে এমনই ভাব দেখায় যে সে কিছু বুঝে না। এ রকম আচরণের মাধ্যমে তারা সম্পর্কটিকে তা
দেখা পেলেম ফাল্গুনে

দেখা পেলেম ফাল্গুনে

আমি চোখ মেললুম আকাশে,/জ্বলে উঠল আলো/পুবে পশ্চিমে।/গোলাপের দিকে চেয়ে বললুম ‘সুন্দর’,/সুন্দর হল সে।’ আমাদের এই ধূলিধূসরিত নগরে বৃক্ষই-বা কই, পুষ্পই-বা কই। তবু পঞ্জিকা বলছে, আজ পয়লা ফাল্গুন। বনে আগুন লেগেছে কি না জানি না, কিন্তু মন তো আজও আছে, আমাদের মনে বসন্ত ঠিকই দোলা দিচ্ছে। রবীন্দ্রনাথ যেমনটা বলেন, ‘পুষ্প ছিল বৃক্ষশাখে, হে নারী, তোমার অপেক্ষায়...।’ আমাদের নারীরা ঠিকই চয়ন করে নিচ্ছে পুষ্প, মালঞ্চ থেকেই, তবে এই মালঞ্চ শাহবাগের মোড়ে, ফুলের একটা দোকান মাত্র। তবু তো ফুলেরই দোকান। আজ নগর ঢাকা বাসন্তী রঙের ঢেউয়ে দুলে উঠবে, ফুলে উঠবে। আর কে না জানে, ‘খোঁপার মতন কোনো ফুলদানি নেই’। ফুল ফুটবে খোঁপায় খোঁপায়, রং ফুটবে শাড়ির আঁচলে। আর কুন্তলে যদি ফুটলই কুসুম, নেই কেন সেই পাখি! পাখিও খুঁজলে পাওয়া যাবে। চারুকলার বকুলতলায় বসন্তবরণের আয়োজন থাকুক কিংবা না থাকুক, একটু এগিয়ে বাংলা একাডেমির বর্ধমান হাউস
যে ৭ কারণে মেয়েরা আপনাকে পাত্তা দেয় না।

যে ৭ কারণে মেয়েরা আপনাকে পাত্তা দেয় না।

মেয়েদের সঙ্গে মেলামেশা করতে গিয়ে বিপাকে পড়েন অনেক পুরুষই। যতই মেয়েদের ঘনিষ্ঠ হওয়ার চেষ্টা করেন আপনি, ততই যেন দূরে সরে যায় তারা। কিন্তু কেন হয় এমনটা? এমন ৭টি সম্ভাব্য কারণের কথা, যেগুলির জন্য মেয়েরা আপনাকে এড়িয়ে চলতে পারে— ১. মেয়েদের দেখলেই আপনি ঘাবড়ে যান। মেয়েদের সঙ্গে মেলামেশায় আপনি তেমন অভ্যস্ত নন। ফলে মেয়েদের সঙ্গে কথা বলার সময় এলেই আপনি ঘেমে নেয়ে একসা হন। মেয়েরাও তাই আপনাকে এড়িয়েই চলে। ২. কোনও মেয়ে আপনার সঙ্গে একটু হেসে কথা বললেই আপনি ভেবে বসেন, সে নির্ঘাৎ আপনার প্রেমে পড়ে গিয়েছে। কিন্তু আদপে অধিকাংশ ক্ষেত্রেই কেসটা তেমন নয়। ফলে আপনি যদি প্রেম-গদগদ হয়ে তার সঙ্গে মেলামেশা করতে শুরু করেন, তাহলে সে স্বভাবতই বিরক্ত হবে। ৩. আপনি ভয়ানকভাবে পৌরুষের অহঙ্কারে ভোগেন। মেয়ে মানেই বোকা, ন্যাকা— এমনটাই ধারণা আপনার। এবং আপনার কথাবার্তা আচার-আচরণে সেই মানসিকতা প্রকাশও পেয়ে থাকে। স্বভাবতই ম
বৃদ্ধ বয়সে বাগান করা স্বাস্থ্যকর

বৃদ্ধ বয়সে বাগান করা স্বাস্থ্যকর

সিএন নিউজ লাইফস্টাইল ডেস্কঃ– এক গবেষণায় দেখা যায়, যেসকল বৃদ্ধা প্রতিদিন তিন ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে বিভিন্ন গৃহস্থালি কাজ এবং রাতে সাত ঘণ্টারও কম বা বেশি সময় ঘুমান, তাদের স্বাস্থ্য ভালো থাকার সম্ভাবনা কম। তবে একই কাজ একজন বৃদ্ধের উপর এই প্রভাব ফেলে না। ডেইলি মেইল গবেষণাটির বরতা দিয়ে জানায়, “এর কারণ হল একজন বৃদ্ধা বেশিরভাগ সময় পার করেন একই ধরনের কাজ করে। অপরদিকে বাগান পরিচর্যা ও গৃহস্থালি রক্ষণাবেক্ষণের কাজে ব্যস্ত থাকা একজন বৃদ্ধ বিভিন্ন ধরনের কাজ করেন, যা মানসিকভাবে উদ্দীপক।” জার্মানির ‘লাইবনিৎজ ইনস্টিটিউট ফর প্রিভেনশন রিসার্চ অ্যান্ড এপিডেমিওলজি’ নামক গবেষণা কেন্দ্রের গবেষক নিকোলাস আদ্জেই বলেন, “লিঙ্গ ভেদে সুস্বাস্থ্যের বিষয়টা নির্ভর করে কোন লিঙ্গের মানুষ কী কাজ করছেন তার উপর। একজন নারীর একই কাজ করতে হয় প্রতিনিয়ত- যেমন রান্না করা, ঘর পরিষ্কার করা ইত্যাদি। যার কোনো স্বাস্থ্যগ
শীতে কোন ত্বকে কি যত্ন

শীতে কোন ত্বকে কি যত্ন

আল্ আমিন শাহেদ- প্রধান প্রতিনিধিঃ কুয়াশা আর ঠাণ্ডা বাতাস ইতোমধ্যেই জানান দিয়েছে শীতের আগমনী বার্তা। ঋতু পরিবর্তনে তাই শুরু হয়েছে ত্বকের নানা সমস্যা। এ সময় ত্বক রুক্ষ ও অনুজ্জ্বল হয়ে যাওয়ায় দরকার একটু বাড়তি যত্নের। নিয়মিত যত্নে শীতেও ত্বক হয়ে উঠবে মসৃণ এবং স্বাস্থ্যজ্জ্বল। জেনে নিন শীতে কোন ধরনের ত্বকে কেমন যত্ন নিবেন: তৈলাক্ত ত্বকের যত্ন যাদের ত্বক খুব তৈলাক্ত তারা ক্লিনজিং ও ময়েশ্চারাইজিংয়ের ক্ষেত্রে অয়েল ফ্রি প্রোডাক্ট ব্যবহার করুন। ঘরোয়া ময়েশ্চারাইজার হিসেবে এক্ষেত্রে টমাটোর রস খুব কার্যকর। ক্লিনজিং ও টোনিংয়ের পর লেটুস পাতার রস, মধু ও লেবুর রস মিশিয়ে লাগাতে পারেন। আনারস, আপেল, পাকা পেঁপের সঙ্গে মধু মিশিয়ে প্যাক ব্যবহার করতে পারেন। শুষ্ক ত্বকের যত্ন শুষ্ক ত্বকের প্রধান কাজ হল ত্বকের ময়েশ্চারাইজার ধরে রাখা। ভিটামিন-ই অয়েল ১/২ চামচ, ১/২ চামচ গ্লিসারিন মিশিয়ে প্রতিদিন
হানিমুন কি এবং কেন?

হানিমুন কি এবং কেন?

সিএন নিউজ লাইফস্টাইল ডেস্কঃ-- বিয়ের পরে স্বামী-স্ত্রী মিলে বেড়াতে যান। এটা যেন চিরাচরিত প্রথা হয়ে গেছে। বাংলায় এই বেড়ানোর নাম মধুচন্দ্রিমা। এটি এসেছে ইংরেজি হানিমুন শব্দ থেকে। কিন্তু হানিমুন এসেছে কোত্থেকে, জানেন কি? বিয়ের পরে বেড়াতে যাওয়ার সঙ্গে কীভাবে ‘হানি’ এবং ‘মুন’ জুড়ে গেল, ইতিহাস ঘেঁটে তার মোটামুটি তিনটি ব্যাখ্যা পাওয়া যায়। ১। একটি ব্যাখ্যায় বলা হয়, হানিমুন শব্দের উৎস ব্যাবিলনে। প্রাচীন ব্যাবিলনে বিয়ের পরে পাত্রীর বাবা পাত্রকে তার চাহিদামতো মধু দিয়ে তৈরি মদ দিতেন। এই মদ থেকেই এসেছে ‘হানি’। ব্যাবিলনের ক্যালেন্ডার ছিল চান্দ্র। সেখান থেকে ‘মুন’ এসে থাকতে পারে বলে মনে করা হয়। গোড়ায় নাকি ব্যাবিলনে বিয়ের পরের মাসটিকে হানি মান্থ বলা হত। সেখান থেকে ক্রমশ হানিমুন। ২। আর একটি ব্যাখ্যায় বলা হয়, বিয়ের পরে একমাস প্রতিদিন একপাত্র করে মধু দিয়ে তৈরি মদ খেতে হত নবদম্পতিকে। পাত্রী
শীতের সবজি বিট, শরীর থাকবে ফিট

শীতের সবজি বিট, শরীর থাকবে ফিট

সিএন নিউজ লাইফস্টাইল ডেস্কঃ-- শীতের সবজি বিট। এই সবজিটিকে আমরা এড়িয়ে চলি। কারণ এটি সম্পর্কে আমরা অনেকেই জানি না। কিন্তু সত্য কথা হল, প্রাচীন সময় থেকেই বিটের বিশেষ কদর রয়েছে। ভিটামিন, জিঙ্ক, আয়োডিন, ম্যাগনেসিয়াম, ক্যালসিয়াম, ক্লোরিন, সোডিয়াম-সহ নানা পরিপোষক পদার্থে ভরপুর হল বিট। ডায়াবেটিস, অ্যানিমিয়া, উচ্চরক্তচাপ, থাইরয়েডের মতো নানা অসুখ নিরাময়ে অত্যন্ত কার্যকরী সবজি এটি। আসুন জেনে নেই বিট খাওয়ার উপকারিতা। ১) অ্যান্টি অক্সিডেন্ট বুস্ট করে: বিটরুট শরীরকে free radicals এর ক্ষতিকারক হাত থেকে বাঁচায়। শরীরে free radicals বিভিন্ন কারণে তৈরি হতে পারে যেমন লাইফস্টাইল স্ট্রেস। এছাড়াও বিভিন্ন ক্ষতিকারক কেমিক্যালের সংস্পর্শে এলে তৈরি হয়। নিয়মিত ধূমপানের থেকেও এটা হতে পারে। এর ফলে ক্যান্সার এবং অ্যালঝাইমারস ডিজিজ হতে পারে। বিটে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট থাকায় free radicals এর ক্ষতিকারক দিক থেকে শ
প্রেম করে বিয়ে করলে যা হয়।

প্রেম করে বিয়ে করলে যা হয়।

"এমডি শাহিন মজুমদার♦প্রেম করে বিয়ে করলে সেই সম্পর্ক বেশিদিন টিকছে না বলে সম্প্রতি একটি গবেষণায় উঠে এসেছে। তবে পরিবার থেকে দেখাশোনা করে বিয়ে দিলে তুলনামূলকভাবে সে সম্পর্ক দীর্ঘস্থায়ী হচ্ছে। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই দেখা যাচ্ছে অভিযোগ একটাই, আগের থেকে পাল্টে গেছে, ও আর আগের মতো নেই। কিন্তু আসল কারণটা কি? একজন মানুষ কি সারা জীবন একরকম থাকে? সে প্রেমের সম্পর্ক হোক বা দেখাশোনা করে বিয়ে, মানুষতো পাল্টাতেই পারে। হ্যাঁ, তবে যেটা মনে হতে পারে, যে একটা মানুষ যখন অপর একজনকে ভালোবাসে এবং বিয়ে করে, তখন তার কাছে প্রচুর চাহিদা থাকে। বিয়ের পর যখন মানুষের আসল ঘরোয়া চেহারাটা বেরিয়ে আসে তখন তা আর মেনে নেওয়া যায় না। কিন্তু আমরা এটা ভুলে যাই যে এটাই আসল। এতদিন মানুষটার শুধু বাইরের সামান্য কিছু অভ্যাস আমরা দেখেছি। এখন সে সবসময় আমার সামনে থাকবে। তাই তার সারাদিনের সমস্ত গুণাবলি আমাদের মেনে নিতে হয়।
বৃষ্টির দিনে প্রেম করার ৭ সুবিধা

বৃষ্টির দিনে প্রেম করার ৭ সুবিধা

সিএন নিউজ২৪ লাইফস্টাইল ডেস্ক: চিরকালই বৃষ্টির সঙ্গে প্রেমের একটা মাখোমাখো সম্পর্ক রয়েছে। সেই কালিদাস থেকে শুরু করে বৈষ্ণব পদাবলীর ‘অভিসার’-এর পদ হয়ে উৎপলকুমার বসুর ‘মন মানে না বৃষ্টি হল এত’ পর্যন্ত কবিরা প্রেমের আদর্শ পরিবেশ তৈরি করতে হলেই, দেখা যাবে, ডেকে এনেছেন বৃষ্টিকে। তাই পাঠকদের জন্য বৃষ্টির দিনে প্রেম করার ৭ সুবিধা নিয়ে আলোচনা করা হলো- ১. আবহাওয়া এমনিতেই বেশ রোম্যান্টিক থাকে। কাজেই আলাদা কবিতা আওড়ে বা প্রেম গদগদ কথা বলে সঙ্গী/সঙ্গিনীকে প্রেমের জোয়ারে ভাসানোর দরকার পড়বে না। ২. পার্কসহ বিভিন্ন ডেটিংস্পটে যদি প্রেম করতে যান তাহলে ছাতার আড়ালে বসার একটা বৈধ কারণ পেয়ে যাবেন। ছাতার আড়ালে তুমুল প্রেম চালান, কেউ কিছু বলতে পারবে না। ৩.এছাড়া বৃষ্টির দিনে পার্কে প্রেম করতে গেলে পুলিশের উৎপাতও থাকবে না। বৃষ্টির মধ্যে কে আর ছাতা মাথায় দিয়ে আসবে আপনাদের পাহারা দিতে! ৪. বা
প্রেম কত প্রকার ও কী কী?

প্রেম কত প্রকার ও কী কী?

এম এম এইচ রায়হানঃ- মনের মত মন খুঁজে সত্যিকারের প্রেম করা এক ধরণের শিল্প। মুখে বললেও প্রেমের মানে বুঝতে সারা জীবন লেগে যায়। তাই প্রেমের কোনও নিদিষ্ট বয়স হয় না। প্রথম প্রেমের কোন নির্দিষ্ট বয়স নেই। তবে অনেকের ক্ষেত্রেই খুব কম বয়সে প্রথম প্রেম এসে থাকে। প্রথম প্রেম বেশিরভাগ সময়ই আদতে প্রেম হয়না, সেটাকে বলা হয়ে থাকে মোহ। প্রথম প্রেম যে কারও সঙ্গে যে কোনও মুহূর্তে হতে পারে। প্রথম প্রেম ছাড়াও মনুষ্য জীবনে প্রেমের অনেক প্রকারভেদ আছে। কি সেই প্রকারভেদ সেটাই আজকের এই প্রতিবেদন থেকে দেখে নেওয়া যাক- ১। প্রথম দেখায় প্রেম= প্রথম দেখাতেই এই ধরনের প্রেমের সূত্রপাত। এ ধরনের প্রেম অনেক ক্ষেত্রেই একতরফা হয়। ছেলেদের ক্ষেত্রে এ ধরনের প্রেম বেশি দেখা যায়। এ ধরনের প্রেমে প্রায় অবধারিতভাবেই তৃতীয় পক্ষের সাহায্যের দরকার পড়ে। এ ধরনের প্রেমের সূত্রপাতে রূপ স্মরণীয় ও দৈহিক সৌন্দর্যের ভূমিকাই
সমকামীদের মৃত্যুদণ্ড দেওয়ার পক্ষে বাংলাদেশ

সমকামীদের মৃত্যুদণ্ড দেওয়ার পক্ষে বাংলাদেশ

রিজওয়ান মজুমদার গিলবাটঃ- পৃথিবীর বেশ কিছু দেশে সমকামীদের মৃত্যুদণ্ড দেওয়ার আইন রয়েছে। এবার সেই সারিতে যোগ দিল বাংলাদেশও। সমকামীদের মৃত্যুদণ্ড দেওয়ার পক্ষে ভোট দিয়েছে বাংলাদেশ ও তার প্রতিবেশী রাষ্ট্র ভারত। অন্যদিকে, সমকামী কোনো অপরাধ নয়, দীর্ঘ দিন ধরেই তা দাবি করছে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠনগুলো। সে দাবির প্রেক্ষিতেই সমকামীদের মৃত্যুদণ্ডের শাস্তি তুলে দেওয়া হোক, এই মর্মে একটি প্রস্তাব আনা হয় সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় অবস্থিত জাতিসংঘের মানবাধিকার কাউন্সিলে। কাউন্সিলের ৪৭ জন সদস্যের মধ্যে ২৭ জন সদস্য মৃত্যুদণ্ড তুলে দেওয়ার পক্ষে ভোট দেয়। বাকি ১৩ জন সদস্য ভোট দেয় বিপক্ষে। সেই ১৩ জনের মধ্যে রয়েছে বাংলাদেশ। তবে সংখ্যাগরিষ্ঠ মানবাধিকারগুলোর আনা প্রস্তাবের স্বপক্ষে অর্থাৎ সমকামীদের শাস্তি হিসেবে মৃত্যুদণ্ড তুলে দেওয়ার পক্ষে ভোট বেশি হওয়ায় প্রস্তাবটি পাস হয়েছে। বাংলাদেশ ছাড়াও আরো যেসব দে
কম বয়সে বিয়ে করার ৬  সুফল

কম বয়সে বিয়ে করার ৬ সুফল

মোঃ আল আমিন বিয়ের সঠিক বয়স কোনটি তা নিয়ে অনেক মতবিরোধ রয়েছে। অনেকেই বলবেন বিয়ে এবং সম্পর্ক আসলে কি তা বুঝে তবেই বিয়ের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা উচিত। আর এই সঙ্গে অর্থনৈতিক বিষয়ও জড়িত থাকে বলে অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী না হওয়া পর্যন্ত অনেকেই বিয়ের কথা ভাবেন না। কিন্তু সত্যি বলতে কি, দ্রুত বিয়ে করে ফেলার সিদ্ধান্ত কিন্তু বেশ ভালো বুদ্ধিমানের মতো কাজ। বয়স একটু কম থাকলেই বিয়ের সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলা উচিত, এতে জীবনটা অনেক বেশিই সহজ মনে হবে আপনার কাছে। অনেক ধরনের সমস্যা থেকে অনায়াসেই মুক্ত থাকতে পারবেন। কীভাবে জানতে চান? ● আপনি যদি বয়স ৩০ পার করে বিয়ে করেন তাহলে স্বাভাবিকভাবেই আপনার বয়সের কারণে আপনার মধ্যে যে গাম্ভীর্য চলে আসবে তার জন্য সম্পর্ক খুব বেশি মধুর ও ঘনিষ্ঠ হবে না। ব্যাপারটি বরং এমন হবে বিয়ে করার কথা তাই বিয়ে করেছি। এ কারণে আগেই বিয়ে করে ফেলা ভালো, যখন আবেগ কাজ করে অনেক। ● বেশি ব
সাবেক প্রেমিকাও হতে পারে ভালো বন্ধু!

সাবেক প্রেমিকাও হতে পারে ভালো বন্ধু!

এম এম এইচ রায়হানঃ- আজ বন্ধু কাল শত্রু! এমনটা তো হরহামেশাই হচ্ছে। এখন যে খুব কাছের মানুষ, দুদিন পর তার সঙ্গে মুখ দেখাদেখি পর্যন্ত বন্ধ। এমনও হয়ে থাকে। যার সঙ্গে চুটিয়ে প্রেম করছেন কয়েকদিন পর সে সম্পর্কটা আর নাও থাকতে পারে। ওপরের তিনটি সম্পর্ক কিন্তু এক নয় মোটেও! বন্ধুত্ব কিংবা অন্য কোনও সম্পর্কের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক মেশানো যায় না কখনও। দীর্ঘ দিন ধরে যার সঙ্গে মনের রসায়ন ছিল, তার সঙ্গে ভুল বোঝাবুঝি বা যেকোনও কারণে আর পথ চলতে ইচ্ছে না করার অনেক কারণই থাকে। এক পর্যায়ে বিচ্ছেদ হয়। দু জনের দুটি পথ দুদিকে যায় বেঁকে। এতকিছুর পরও কি ভুলে থাকা যায় সাবেক প্রেমিক কিংবা প্রেমিকাকে? সময়ের সাথে সাথে দিন অবশ্য পাল্টেছে। এখন সাবেক প্রেমিকার প্রেমিকার মধ্যে বিচ্ছেদের পরও অনেক সময় বেশ ভালো সম্পর্ক দেখা যায়। যোগাযোগ হয় মাঝে মধ্যে; দেখা আর কথাবার্তা তো হয়ই। এটাকেই বলা হচ্ছে ভালো বন্ধুত্ব। সম্পর্ক সাবেক
বন্ধুর অভাব নেই পৃথিবীতে, চাই ভালো হোক আর খারাপ হোক বন্ধু বন্ধুইঃ- রিজওয়ান মজুমদার গিলবাট

বন্ধুর অভাব নেই পৃথিবীতে, চাই ভালো হোক আর খারাপ হোক বন্ধু বন্ধুইঃ- রিজওয়ান মজুমদার গিলবাট

মোঃ আল আমিনঃ- অংহন্কারী ,অর্থের বরাই কারী ও স্বার্থবাদীদের সাথে বন্ধুত্ব নয়। ......@@@ তথ্য ও ছবিঃ-এমডি শাহিন মজুমদার চেয়ারম্যান, সিএন নিউজ২৪.কম ও রিজওয়ান মজুমদার গিলবাট ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান, সিএন নিউজ২৪.কম..@@@ সুযোগসন্ধানী বন্ধু স্বার্থ উদ্ধার হলেই সটকে পরে । তাই বন্ধুত্বের বেলায়ও সবার সতর্ক থাকা উচিত। বন্ধু ও বন্ধুত্ব নিয়ে পৃথিবীতে অনেক কথা-উপকথা প্রচলিত আছে। একটি সত্য গল্প বলি- বিশ্বখ্যাত ইংরেজ অভিনেতা রিচার্ড বারটন এবং কবি ডিলান টমাসের সখ্য ও বন্ধুত্ব ছিল কিংবদন্তি তুল্য। পশ্চিমের সিমেট্রি সম্পর্কে নিশ্চয়ই অনেকের ধারনা আছে। রকমারি ফুল-ফল, সুনিবিড় গাছগাছালিতে পরিপূর্ণ অতি নির্জন ও পরিচ্ছন্ন স্বর্গোদ্যান যেন। রিচার্ড বারটন মারা যাওয়ার পর তার অন্তিম ইচ্ছা অনুযায়ী দাফনের আগে কফিনের ওপরে একগুচ্ছ তরতাজা ও টকটকে লাল গোলাপ আর কবি ডিলানের একটি কাব্য সমগ্র রাখা হয়। বাইবেলের অন্তিম
রূপচর্চায় কাঁচা হলুদ

রূপচর্চায় কাঁচা হলুদ

বিশেষ প্রতিনিধিঃ- রান্নাঘর, রূপচর্চা, স্বাস্থ্যরক্ষা- হলুদের জয়জয়কার সবখানেই। রূপচর্চার ক্ষেত্রে হলুদের ব্যবহার অনেক বেশি উপকারী। শুধু হলুদ নিয়েই তো বাঙালি বিয়ের আস্ত একটি পর্ব রয়েছে- গায়ে হলুদ। সুপ্রাচীন কাল থেকেই হলুদের ব্যবহার জনপ্রিয়। ত্বকের পরিচর্যায় এর জুড়ি মেলা ভার। চলুন জেনে নেয়া যাক হলুদ দিয়ে তৈরি কিছু প্যাক সম্পর্কে- ১. কাঁচা হলুদের রস, মুলতানি মাটি মিশিয়ে মুখে লাগান। প্যাক শুকিয়ে এলে গোলাপজল দিয়ে মুছে নিন। ২. সামান্য কাঁচা হলুদ ও মধু মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে লাগাতে পারেন। ৩. হলুদের গুঁড়োর সাথে শসার রস অথবা লেবুস রস মিশিয়ে মুখে লাগান। ১৫ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। ৪. হলুদ বেটে সারা শরীরে স্ক্রাব হিসেবে ব্যবহার করুন। এতে ত্বকে আসবে কোমলতা। ৫. অল্প একটু দুধের ক্রিমের সাথে হলুদ মিশিয়ে লাগালে ত্বক হবে কোমল, মসৃণ আর সতেজ। ৬. হলুদের গুঁড়া ব্রণ প্রতিরোধ করে। হলুদ বাটা ক্ষতস্থ
রূপচর্চায় গোলাপজলের অজানা উপকারিতা।

রূপচর্চায় গোলাপজলের অজানা উপকারিতা।

এস আই ইমরানঃ--  প্রকৃতি থেকে পাওয়া কয়েকটি বিশুদ্ধ উপাদানের মধ্যে গোলাপজল অন্যতম। প্রাচীনকাল থেকেই পবিত্রতা ও সৌন্দর্যের অন্যতম উপাদান হিসেবে গোলাপজল ব্যবহার হয়ে আসছে। এটি আয়ুর্বেদিক চিকিৎসায় স্বীকৃত একটি ওষুধ। গোলাপজল একদিকে যেমন ত্বককে প্রাকৃতিক ভাবে পরিষ্কার করে তেমনি এর উজ্জ্বলতাও বাড়িয়ে তোলে দ্বিগুণ। আসুন জেনে নেই রূপচর্চায় এর অজানা কিছু উপকারিতা সম্পর্কে। ১. বলিরেখা ও বয়সের ছাপ দূর করতে গোলাপজলঃ গোলাপজল নিয়মিত ব্যবহারে চেহারায় বয়সের ছাপ সহজে পড়বে না। কারণ এতে আছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ও ভিটামিন এ-এর গুণ যা বয়সের সাথে সাথে বলিরেখা, চোখের নিচ ফুলে যাওয়া ও বয়সের ছাপের সমস্যাটি এড়াতে বেশ কার্যকরী। ২. ক্লান্ত চোখের স্বস্তি অনেকক্ষণ একনাগাড়ে কম্পিউটার মনিটরের দিকে তাকিয়ে থাকতে থাকতে বা কাজ করতে করতে চোখ ব্যথা হয়, জ্বালাপোড়া করে বা ক্লান্তিভাব চলে আসে। সেক্ষেত্রে ঠাণ্ডা গোলাপজলে তুলা
জেনে নিন আকর্ষণীয় ঠোঁটের কিছু গোপন তথ্য।

জেনে নিন আকর্ষণীয় ঠোঁটের কিছু গোপন তথ্য।

এস আই ইমরানঃ----- ঠোঁট হবে আকর্ষণীয় এটাই সবার কাম্য। কিছু ঠোঁট শুষ্ক হয়ে যাওয়া, চামড়া ওঠা, ফাটাভাব ও কালচে হওয়া খুবই নিয়মিত সমস্যা। ঠোঁট মিউকার্স মেমব্রেন দ্বারা আবৃত। ঠোঁটের ত্বক খুবই নরম ও সেনসেটিভ। ঠোঁটে কোন তেল গ্রন্থি থাকে না। তাই বাইরের আবহাওয়া থেকে নিজেকে রক্ষা করা ঠোঁটের জন্য বেশ কঠিন। ঠাণ্ডা গরম, সূর্যরশ্মি, দুষণ সবই ঠোঁটের জন্য ক্ষতিকর। এছাড়া ঠোঁট কামড়ানো বা জিভ দিয়ে ঠোঁট বারবার ভিজানোও ক্ষতিকর। অপ্রয়োজনীয় প্রসাধন : অপ্রয়োজনীয় প্রসাধন ঠোঁটকে শুষ্ক করে তোলে। সাময়িক সৌন্দর্যের জন্য অপ্রয়োজনীয় প্রসাধন ব্যবহার করবেন না। টুথপেস্ট : টুথপেস্ট আমাদের ঠোঁটের সংস্পর্শে আসে দু’বেলা। তাই যথাযথ টুথপেস্ট ব্যবহার না করলে ঠোঁটের ক্ষতি হতে পারে। লিপস্টিক : লিপস্টিকের কারণে ঠোঁটে এ্যালার্জি ও ঠোঁটের ক্ষতি হতে পারে, তাই আপনার ঠোঁটে যে কোম্পানির লিপস্টিক কোন প্রতিক্রিয়া করবে ন
​দেহের বাড়তি ওজন কমায় পেঁয়াজ

​দেহের বাড়তি ওজন কমায় পেঁয়াজ

আমাদের দেশে রান্নায় পেঁয়াজ ব্যবহার হয় অহরহ। কিন্তু এটি সরাসরি তরকারি হিসেবেও ব্যবহার হতে পারে এবং তা হতে পারে শরীরের জন্য খুবই পুষ্টিকর। একই সাথে এটি কমাতে পারে আপনার শরীরের বাড়তি ওজনও। কারন আপনি জেনে থাকবেন যে পেঁয়াজে আছে উচ্চমানের সালফার যৌগ। আর এর কারণেই পেঁয়াজ কাটলে আমাদের নাকে ঝাঁঝালো গন্ধ লাগে চোখে পানি চলে আসে। তবে এ বস্তুটিই আবার আমাদের অনেক উপকারে আসে। গবেষকেরা বলছেন, পেঁয়াজ উচ্চ রক্তচাপ কমাতে সাহায্য করে। ফলে উচ্চ রক্তচাপের রোগীরা নিয়মিত পেঁয়াজ সমৃদ্ধ তরকারি বা পেঁয়াজের তরকারি খেলে উপকার পাবেন। শুধু তাই নয়, পেঁয়াজ হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকিও কমায়। সুতরাং যারা পেঁয়াজ খান তারা খানিকটা চিন্তামুক্ত থাকতে পারেন। পেঁয়াজ ক্যান্সারের ঝুঁকিও কমায়। শরীরের প্রয়োজনীয় ভিটামিন সি-এর ২০ ভাগ মেটানো সম্ভব একটা পেঁয়াজ থেকেই। একটি বড় মাপের পেঁয়াজে ৮৬.৮ শতাংশ পানি, ১.২ শতাংশ প্রোট