প্রচ্ছদ / কুমিল্লা ও নাঙ্গলকোট / ব্যতিক্রমী আয়োজনে অসহায় ও ছিন্নমূল মানুষের মাঝে সংশপ্তক’র ইফতার উপহার

ব্যতিক্রমী আয়োজনে অসহায় ও ছিন্নমূল মানুষের মাঝে সংশপ্তক’র ইফতার উপহার

কুমিল্লা জেলার নাঙ্গলকোট উপজেলায় এক ব্যতিক্রমি আয়োজনের মাধ্যমে অসহায় ও ছিন্নমূল মানুষের মাঝে ইফতার উপহার বিতরণ করলো স্বেচ্ছাসেবী টিম ‘সংশপ্তক ‘। শনিবার বিকাল ৫টা হতে শুরু করে ইফতারের আগ মূহুর্ত পর্যন্ত চলে তাদের এই কার্যক্রম। এসময় তারা প্রায় ২০০ জন অসহায় ও ছিন্নমূল মানুষের মাঝে বিরিয়ানি, জুস ও মাক্স বিতরণ করেন।

সংশপ্তকের সদস্যরা একটি ব্যতিক্রমি উদ্যোগের মাধ্যমে অসহায় ও ছিন্নমূল মানুষের মাঝে ইফতার উপহার বিতরণ করেন। তারা একটা নির্দিষ্ট স্থানে ইফতারের প্যাকেট গুলো সাজিয়ে রাখেন। পরবর্তীতে অসহায় ও ছিন্নমূল মানুষ সেখান থেকে তাদের প্রয়োজন অনুযায়ী ইফতারের প্যাকেট গুলো সংগ্রহ করেন।

ইফতার উপহার পেয়ে উপজেলায় অবস্থানরত অনেক ছিন্নমূল ও অসহায় মানুষের মুখে হাসি ফুটেছে। অনেকে খুশিতে আবেগে আপ্লূত হয়ে পড়েন। তাদের মধ্য হতে একজন বলেন, “রোজা রেখে কখনো তেমন ভালো মন্দ ইফতার করা হয় না। আবার কখনো কখনো শুধু পানি খেয়েই রোজা ভঙ্গ করতে হয়। আজকে উনাদের কাছ থেকে ইফতার পেয়ে অনেক ভালো লাগছে। আমাদের তো আর সবসময় ভালো মন্দ খাওয়ার সুযোগ হয় না! আল্লাহ উনাদের মঙ্গল করুক।”

সংশপ্তকের স্বেচ্ছাসেবীরা বলেন, “প্রথম থেকেই আমাদের ইচ্ছে ছিলো একটি ব্যতিক্রমি ইফতার উপহার আয়োজন করার। আজ আমরা সেটি করতে সক্ষম হয়েছি।আমরা ইফতার গুলো একটি নির্দিষ্ট জায়গায় সাজিয়ে রেখে দিয়েছি। আমরা দেখলাম কেউই তাদের প্রয়োজনের বাইরে অতিরিক্ত প্যাকেট নেয় নি। অসহায় ও ছিন্নমূল মানুষ গুলো আসলেই অনেক অসহায় অবস্থায় তাদের দিনকাল যাপন করছে। আর তাদের জন্য কিছু একটা করার ইচ্ছে থেকেই আমাদের আজকের এই প্রত্যয়।তাদের মুখে একটু হলেও হাসি ফোটাতে পারলে আমাদের স্বার্থকতা।”

ভবিষ্যতে এমন কার্যক্রম চলমান থাকবে কিনা এমন প্রশ্নের উত্তরে তারা জানান,”আমরা সকল স্বেচ্ছাসেবকই এখানে ছাত্র। আমরা আমাদের সাধ্যমতো চেষ্টা করে যাচ্ছি। যদি সমাজের উচ্চবিত্ত মানুষ গুলো আমাদের সহায়তা করে তাহলে আমরা এটি চলমান রাখতে পারবো বলে আশা রাখছি।” তারা সমাজের উচ্চবিত্ত মানুষদের অসহায় ও ছিন্নমূল মানুষের পাশে এসে দাঁড়ানোর জন্য বিনীত ভাবে অনুরোধ করেছেন।

উল্লেখ্য, দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত নাঙ্গলকোট উপজেলার শিক্ষার্থীদের সেচ্ছাসেবী টিম ‘সংশপ্তক’। তারা করোনার প্রথম থেকেই নাঙ্গলকোট উপজেলায় বিভিন্ন সমাজিক ও জনকল্যাণমূলক কাজ করে আসছে। এর আগে রমজান মাসে তারা বেশ কয়েকদিন অসহায় ও ছিন্নমূল মানুষের মাঝে সেহেরি বিতরণ কার্যক্রম চালু রেখেছে।

এছাড়াও চেক করুন

সৌদি আরবে নাঙ্গলকোটের এক রেমিটেন্স যোদ্ধার মৃত্যু!

এমডি শাহিন মজুমদার, সৌদি আরব। মধ্যে প্রাচ্যের দেশ সৌদি আরবের মক্কার জহুরানায়, জহুরানায়, কুমিল্লা নাঙ্গলকোট …