প্রচ্ছদ / কুমিল্লা ও নাঙ্গলকোট / মধ্যরাতে সেহেরি নিয়ে ছিন্নমূল মানুষের পাশে স্বেচ্ছাসেবী টিম ‘সংশপ্তক’

মধ্যরাতে সেহেরি নিয়ে ছিন্নমূল মানুষের পাশে স্বেচ্ছাসেবী টিম ‘সংশপ্তক’

রবিউল হোসাইন রাজুঃ

কুমিল্লার নাঙ্গলকোট উপজেলার বিভিন্ন জায়গায় ছিন্নমূল মানুষের মাঝে সেহেরি বিতরণ করেছে দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত নাঙ্গলকোট উপজেলার শিক্ষার্থীদের সেচ্ছাসেবী টিম ‘সংশপ্তক’। রবিবার রাত ২টা থেকে শুরু হয় তাদের এই সেহেরি বিতরণের কার্যক্রম। নাঙ্গলকোট পৌর সদরের রেলস্টেশন হাইস্কুল গেইট সহ আশেপাশের বিভিন্ন জায়গায় ছড়িয়ে থাকা ছিন্নমূল মানুষের মাঝে তারা সেহেরি বিতরণ করে।

বর্তমান করোনা পরিস্থিতির কারণে দেওয়া লকডাউনের ফলে অনেকটাই অসহায় অবস্থায় দিন কাটাচ্ছে এই অসহায় মানুষ গুলো।অধিকাংশ সময়ই তাদের না খেয়ে থাকতে হয়। গভীর রাতে এভাবে সংশপ্তক’র হাত থেকে সেহরি পেয়ে খুশিতে আত্মহারা হয়ে ওঠেন অসহায় ও ছিন্নমূল মানুষগুলো।

ছিন্নমূল মানুষ গুলোর মধ্যে একজন বলেন, “অনেক সময় না খেয়ে থাকতে হয়। কেউ খাবার দিলে পেটে যায়, না দিলে অনাহারে থাকতে হয়। যারা এই মধ্যরাতে খাবার দিচ্ছেন আল্লাহ তাদের ভালো করুক।”

সেহেরি বিতরণ কালে উপস্থিত ছিলেন
সংশপ্তক টিমের সমন্বয়ক জহিরুল ইসলাম, নাঙ্গলকোট পৌরসভা টিম লিডার সাইফুল ইসলাম স্বপ্নীল, মোঃ মাজেদুল হাসান- টিম লিডার জোড্ডা পশ্চিম ইউনিয়ন, আরিফ মজুমদার সদস্য নাঙ্গলকোট পৌরসভা, মাহফুজুর রহমান সদস্য নাঙ্গলকোট পৌরসভা, রবিউল হোসাইন রাজু সদস্য হেসাখাল ইউনিয়ন মোঃ আশিকুর রহমান- সদস্য হেসাখাল ইউনিয়ন, সৌরভ ভূঁইয়া – সদস্য হেসাখাল মোঃ জহির উদ্দিন – সদস্য বক্সগঞ্জ ইউনিয়ন।

এই প্রসঙ্গে সংশপ্তক টিমের সমন্বয়ক জহিরুল ইসলাম বলেন, ” সেই করোনার প্রথম থেকেই সংশপ্তক টিম করোনা মোকাবেলায় মানুষের জন্য কাজ করে যাচ্ছে। এরই অংশ বিশেষ আমরা ছিন্নমূল মানুষের মাঝে এই সেহেরি বিতরণের কার্যক্রম পরিচালনা করেছি। ইনশাআল্লাহ যতদিন লকডাউন আছে ততদিন আমরা এই সেহেরি বিতরণের কার্যক্রম চালিয়ে যেতে চাই।তবে সেইক্ষেত্রে সমাজের বিত্তবান মানুষদের এগিয়ে আসার জন্য বিনীতভাবে অনুরোধ করছি।

এছাড়াও চেক করুন

মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সন্তান জুবায়েদ হতে চান কুমিল্লা (দঃ) জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক

সিএন ডেস্কঃ- বাংলাদেশ ছাত্রলীগের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ একটি শাখা কুমিল্লা (দঃ) জেলা। আর এই জেলা ছাত্রলীগের …