শুক্রবার , ৩ এপ্রিল ২০২০
Home / প্রচ্ছদ / সময় বাড়ল জবির প্রথম সমাবর্তনে রেজিস্ট্রেশনের

সময় বাড়ল জবির প্রথম সমাবর্তনে রেজিস্ট্রেশনের

মোঃ মিনহাজুল ইসলাম, জবি প্রতিনিধি।

 

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) প্রথম সমাবর্তনে অংশগ্রহ‌ণের রে‌জিস্ট্রেশ‌নের সময় মঙ্গলবার (৩০ এপ্রিল) থে‌কে শেষ হবার কথা থাকলেও তা চা‌লি‌য়ে যাওয়ার কথা জা‌নি‌য়ে‌ছেন বিশ্ব‌বিদ্যালয় ট্রেজারার ও সমাবর্তন কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক সে‌লিম ভূঁইয়া।

রে‌জি‌স্ট্রেশনের সময় কত‌দিন পর্যন্ত বাড়ানো হ‌বে তা পরব‌র্তি‌তে বিজ্ঞ‌প্তির মাধ্য‌মে জানা‌নো হ‌বে ব‌লেও জানান তি‌নি।

মঙ্গলবার (৩০ এপ্রিল) জ‌বি ট্রেজারার অধ্যাপক সে‌লিম ভূঁইয়া সাংবা‌দিক‌দের এ তথ্য জানান।

এসময় তি‌নি ব‌লেন, আমরা প্রথমবা‌রের মত জগন্নাথ বিশ্ব‌বিদ্যাল‌য়ে সমাবর্ত‌নের আ‌য়োজন করার সিদ্ধান্ত নি‌য়ে‌ছি। সমাবর্ত‌নে রে‌জি‌স্ট্রেশ‌নের মেয়াদ আজ থে‌কে শেষ হবার কথা থাক‌লেও আমরা তা বন্ধ কর‌ছি না। পরব‌র্তি ঘোষণা না আসা পর্যন্ত যোগ্য শিক্ষার্থীরা তা‌দের রে‌জি‌ষ্ট্রেশন কার্যক্রম চা‌লি‌য়ে যে‌তে পার‌বে। শেষ তা‌রিখ ক‌বে নাগাদ হ‌বে আমরা তা ও‌য়েব সাই‌টে জা‌নি‌য়ে দে‌বো।

তি‌নি ব‌লেন, সমাবর্তনটা প্রথমবার হ‌চ্ছে। এ নি‌য়ে শিক্ষার্থীরা বেশ দিধাদ্বন্দ্বে আ‌ছে ব‌লে আমরা জে‌নে‌ছি। আমরা সমাবর্ত‌নে রে‌জি‌স্ট্রেশ‌নের তা‌রিখ বাড়া‌নোর বিষয়‌টি টিভি স্ক্রল দেয়া যায় কিনা এ ব্যাপারটি ভাবছি।

এ পর্যন্ত প্রায় ১৫ হাজারের গ্রাজুয়েট শিক্ষার্থী সমাবর্তনের আবেদন করেছেন ব‌লেও জানা ট্রেজারার।

আবেদন করেত গিয়ে অনেক শিক্ষার্থী ভোগান্তিতে পড়েছে বলে অভিযোগ উঠার ব্যাপারে সেলিম ভূঁইয়া বলেন, এগুলো মিথ্যা অ‌ভি‌যোগ ছড়ানো হয়েছে। কীভাবে পেমেন্ট করতে হবে তা স্পষ্ট করে জানানোই হয়েছে। এটা কোনো সমস্যাই না, এটি‌কে সমস্যা বানানো হয়েছে।

‌ট্রেজা‌রারের বক্তব্যের সা‌থে যুক্ত ক‌রে রেজিস্ট্রার ওহিদুজ্জামান বলেন, বিকাশে প্যামেন্ট মেসেজ আসেনা বা কনফার্ম হচ্ছেনা এটা বিকাশের সমস্যা, আমাদের না। পে‌মেন্ট দি‌লে তা কনফার্ম হ‌য়ে‌ছে। ত‌বে এরপরও কেউ সমস্যা ম‌নে কর‌লে আমা‌দের সা‌থে যোগা‌যোগ কর‌তে পা‌রেন।

জানা যায়, সমাবর্তনে জন্য প্রতিষ্ঠার পর থেকে ২০১২-২০১৩ শিক্ষাবর্ষ পর্যন্ত স্নাতক, স্নাতকোত্তর, এমফিল, পিএইচডি ও সান্ধ্যকালীন ডিগ্রিধারী সকল শিক্ষার্থীরা যারা অন্তত একটি ডিগ্রি জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অর্জন করেছেন তারাই সমাবর্তনে অংশগ্রহণ করতে পারবেন।

স্নাতক/বিবিএ’র জন্য ৩ হাজার টাকা, সঙ্গে মূল সনদ ফি ৪০০ টাকা। স্নাতকোত্তর/ এমবিএ’র জন্য ৪ হাজার টাকা, সঙ্গে মূল সনদ ফি ৪০০ টাকা। এমফিল ও পিএইচডির জন্য ৪ হাজার ৫০০ টাকা, সঙ্গে ৪০০ টাকা মূল সনদ ফি। আর সন্ধ্যাকালীন সব প্রোগ্রামের সনদের জন্য ৬ হাজার টাকা, সঙ্গে মূল সনদ ফি ৮০০ টাকা। এর সঙ্গে সবাইকে সার্ভিস চার্জ হিসেবে রেজিস্ট্রেশন ফি ও মূল সনদ ফির ১ শতাংশ হারে টাকা দিতে হবে। এই আ‌বেদ‌নের সময় নির্ধার‌ন করা হ‌য়ে‌ছিল ৩০ এ‌প্রিল পর্যন্ত।

এছাড়াও চেক করুন

ইবি বন্ধ থাকছে আরোও ৯ দিন

নিজস্ব প্রতিবেদকঃঃ করোনা প্রাদুর্ভাবের কারণে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে সরকারি ঘোষণা অনুযায়ী আগামী ৯ এপ্রিল …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error

Share the love!